শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » দেশে প্রথম নারী কেলেঙ্কারির সূত্রপাত ঘটে যেভাবে!



দেশে প্রথম নারী কেলেঙ্কারির সূত্রপাত ঘটে যেভাবে!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
24.05.2021

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জ্যেষ্ঠ পুত্র তারেক রহমান ও তার ব্যবসায়িক অংশীদার গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের হাত ধরেই এ দেশে নারী কেলেঙ্কারির সূত্রপাত ঘটে। তাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত নারীদের ব্যবসার হাতিয়ার বানিয়ে লাগামহীনভাবে চলে নানা কর্মকাণ্ড। এরপর তারা রাষ্ট্রক্ষমতা ছাড়লেও ছাড়েনি এই ব্যবসা। পর্দার অন্তরালে হিমশীতল আবহাওয়ায় সবকিছু কৌশলে ম্যানেজ করে যাচ্ছে তারা।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও ব্যবসায়িক অংশীদার গিয়াস উদ্দিন আল মামুনের গাজীপুরের বাগানবাড়ি খোয়াব ভবনে প্রায় প্রতিরাতেই বসতো মদ, জুয়া ও অর্ধনগ্ন নারীদের নিয়ে মনোরঞ্জনের আসর। সেখানে চিত্রনায়িকা শায়লা, জনা, ফারহানা নিশো, অদিতি সেনগুপ্ত, বেবী নাজনীন, শামা ওবায়েদের পাশাপাশি একাধিক ভারতীয় নায়িকাও আসা-যাওয়া করতো। আর এগুলোর পূর্ণ তত্ত্বাবধানে ছিলেন তারেক রহমান ও তার বন্ধু গিয়াসউদ্দিন আল মামুন। তারা ওই সমস্ত মক্ষীরাণীদের নির্দেশনা দিয়ে যৌবনের জালে মানুষকে ফাঁসিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিতে। এতে ভেঙেছে অনেকের সাজানো সুখের সংসার। কেউবা হারিয়েছে নিজের সর্বস্ব।

জানা গেছে, চক্রটি এখনো সক্রিয়। চুপিসারে চালিয়ে যাচ্ছে এই অপকর্ম। তবে তারেক রহমান লন্ডনে অবস্থান করায় এসব দেখভাল করছে ছাত্রদল ও যুবদলের একটি অংশ। আর তাদের দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন দলের তারেকপন্থী সিনিয়র একটি অংশ। তারা ব্যবসার হিসেব-নিকাশ কষে লভ্যাংশটুকু তারেককে পাঠিয়ে দিচ্ছেন তার আয়েশি জীবনযাপনের জন্য।

রাজনৈতিক বিজ্ঞজনরা বলছেন, দুর্নীতি ও সব অবৈধ কর্মকাণ্ডের আঁতুড় ঘর হচ্ছে বিএনপি। যে কারণে বর্তমানে তারা তাদের কৃতকর্মের ফল হাতেনাতে ভোগ করছে। পরীক্ষিত দুর্নীতি মামলায় দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারান্তরীণ, একই অপরাধে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দেশছাড়া এবং সাংগঠনিক হ-য-ব-র-ল’তায় বিগত সবগুলো নির্বাচনে তাদের ভরাডুবি। এ থেকে সহজেই অনুমেয় ও প্রমাণিত- বিএনপি রাজনৈতিকভাবে জনবিচ্ছিন্ন একটা দল। এ কারণে ভোটাররা ব্যালট-ইভিএমে বারবার তাদের প্রত্যাখ্যান করছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি