শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১
  • প্রচ্ছদ » other important » শফীপুত্রকে হেফাজতের কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত ​করার নেপথ্যে কী ?



শফীপুত্রকে হেফাজতের কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত ​করার নেপথ্যে কী ?


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
08.06.2021

ডেস্ক রিপোর্ট: গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী তাণ্ডব চালায় হেফাজতে ইসলাম। বিএনপি-জামায়াতের সহায়তায় মোদির সফরের বিরোধিতার নাম করে দেশে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে সরকার পতনের সেই চেষ্টা ভণ্ডুল হয়ে যাওয়ার পর রাজনৈতিক চাপের মুখে ২৬ এপ্রিল হেফাজতের কমিটি ভেঙে দেন জুনায়েদ বাবুনগরী। এরপর নানা আলোচনা-সমালোচনার পরে আবারও কমিটি ঘোষণা করেছে হেফাজতে ইসলাম। অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি গঠন করার কথা বললেও হেফাজতের নতুন কমিটিতেও দেশে তাণ্ডবকারী সাবেক কমিটির কয়েকজন নেতাকেও রাখা হয়েছে। এছাড়াও কমিটিতে বিশেষ চমক হিসেবে রাখা হয়েছে হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আমির প্রয়াত শাহ আহমদ শফীর বড় ছেলে ইউসুফ মাদানীকে। হেফাজতের নতুন ঘোষিত কমিটিতে সহকারী মহাসচিবের পদ দেওয়া হয়েছে ইউসুফ মাদানীকে। এরপরই শুরু হয় আলোচনা– যাদের বিরুদ্ধে আল্লামা শফীকে হত্যার অভিযোগ আছে তাদের নিয়ে গঠিত কমিটিতে ইউসুফ মাদানীকে অন্তর্ভুক্ত ​করার কারণ কী?

হেফাজতের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মঈনুদ্দীন রুহী বলেন, আল্লামা শফীর হত্যাকারীরা তাদের ওপর থেকে অভিযোগের তীর সরাতে কৌশল হিসেবে ইউসুফ মাদানীকে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করেছেন। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেছেন। হত্যাকারীদের সাথে আমরা কোন আপস করব না। দেশের আলেমদের নিয়ে জামায়াত-বিএনপির দোসর বাবুনগরীদের বিরুদ্ধে আমরা সংগ্রাম অব্যাহত রাখব। হেফাজতকে আবার ষড়যন্ত্রকারীদের হাত থেকে উদ্ধার করে মূল রাস্তায় ফিরিয়ে নিয়ে আসব।

এদিকে গণমাধ্যমে পাঠানো ইউসুফ মাদানীর হাতে লেখা বিবৃতিতে হেফাজতের নতুন কমিটিকে ‘তথাকথিত’বলে উল্লেখ করা হয়। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটিতে আমার নাম দেখে আমি মর্মাহত। অতএব যে বা যাহারা আমার পিতাকে কষ্ট দিয়ে দুনিয়া থেকে বিদায় দিয়েছেন তাদের সঙ্গে আমি কখনও এক হতে পারি না। শফীপুত্র বলেন, আজকের ঘোষিত তথাকথিত হেফাজতের কমিটি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। আমার বাবাকে হত্যার পর তারা হেফাজতকে কুক্ষিগত করেছে। দেশে তাণ্ডব চালিয়ে আলেমদের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে। আমি মনে করি , কমিটিতে আমার নাম অন্তর্ভুক্ত করার পেছনে তাদের রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র আছে। এই ষড়যন্ত্রে আমি পা দিব না।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি