শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১



বিএনপিতে সবাই নেতা, কর্মী নয় কেউ!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
09.06.2021

আবারও প্রকাশ্যে এলো বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দল। যার প্রেক্ষিতে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বললেন, এখন বিএনপিতে কর্মী নেই। সবাই নেতা। ৮ জুন (মঙ্গলবার) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠিত ওই সভায় গয়েশ্বর বলেন,বর্তমানে বিএনপিতে শতকরা ৮০ জন নেতা আর মাত্র ২০ জন কর্মী। সবাই স্টেজে বক্তব্য দিতে চান কিন্তু কর্মী হতে চান না। যেদিন সবাই কর্মী হবে, সামনে একজন নেতা হবে, সেদিন গণতন্ত্র মুক্তি পাবে। তা নাহলে কিছুই হবে না।

তার এমন বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়েছেন বিএনপির একাধিক জ্যেষ্ঠ নেতা। বাংলা নিউজ ব্যাংককে তারা জানিয়েছেন, গয়েশ্বরের মতো একজন নেতা, কিভাবে এই কথা বলেন। তার কাছ থেকে তারা এমনটি আশা করেননি। এ ব্যাপারে দলের পক্ষ থেকে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। কারণ, আসলেই তো সবাই নেতা নয়। আর যারা নিজেদেরকে নেতা ভাবেন, তাহলে তারা কেন পরিবর্তন আনছেন না? কেন তাদেরকে মিছিল-মিটিং-সমাবেশে দেখা যাচ্ছে না? কারণ কী?

পক্ষান্তরে যুক্তি দেখিয়েছেন বিএনপির আরেকটি পক্ষ। তাদের ভাষ্য, গয়েশ্বরের যখন এতই গলাবাজি করছেন, তাহলে তিনি বক্তব্য দেওয়া ব্যতীত মাঠে থাকেন না কেন? নাকি শুধু বলে যাওয়াটাই তার কাজ? নেতাদের কি মাঠে নামতে নেই? তিনি হয়তো ভুলে গেছেন, নেতাকে হতে হয় জনমানুষের, তৃণমূলের। সবার। আশারাখি, তার ভ্রান্ত ধারণা দূর হবে। আর দলের এমন সংকটময় মুহুর্তে নিজেদের ভেতর এভাবে কাঁদা ছোঁড়াছুঁড়ি না করে বরং কিভাবে এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়, সে উপায় ভাবতে হবে। তবেই অবস্থার পরিবর্তন হবে। এর আগে নয়।

এ বিষয়ে দেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপির ভেতরে অনৈক্য ও কোন্দল শক্তভাবে বাসা বেঁধেছে। এটি আর গোপন কোন বিষয় নয়। বরং ওপেন সিক্রেটে পরিণত হয়েছে। আর এটা একদিনের ফসল নয়। তাদের দীর্ঘদিনের সাংগঠনিক ধ্বজভঙ্গতা ও নেতৃত্বের সমন্বয়হীনতার ফসল। যার দায় এড়াতে পারেন না খোদ বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তার জ্যেষ্ঠ পুত্র দলীয় ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। কারণ, তাদের অভ্যন্তরীণ মনোমালিন্য ও রেষারেষিতে ক্ষতিগ্রস্ত পুরো বিএনপি। কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ হওয়ায় আজ বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থা পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। অচিরেই যা জাদুঘরের রাজনৈতিক দলে পরিণত হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি