বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১



মনোবল ভেঙে পড়েছে বিএনপির


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
16.06.2021

নিউজ ডেস্ক : ১৪ বছর ধরে ক্ষমতায় না থাকা বিএনপি করোনাকালীন সময় আসার পর থেকে একবারে চুপসে গিয়েছে। এমতাবস্থায় বিএনপির তৃণমূলের মনোবল বৃদ্ধি করতে তৎপর হয়েছে দলের সিনিয়ররা।

তবে বিএনপি নেতা-কর্মীদের মাঝে আশার বাণী ছাড়তে গিয়ে বিএনপি নেতারা হতাশা বিলি করছেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। দুর্বলতা ঢাকতে গিয়ে ভুলক্রমে ঢাক-ঢোল পিটিয়ে নিজেদের সাংগঠনিক দুর্বলতার কথা প্রকাশ করছেন বিএনপির নেতারা এমনটাই মনে করছেন তারা।

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক সুভাস সিংহ রায় বলেন, বিএনপির রাজনীতিতে যে ফাটল ধরেছে তা সহজে দূর করা সম্ভব নয়। বিএনপির রাজনীতিতে আজকে অবিশ্বাস ভর করেছে। তৃণমূলের সঙ্গে কেন্দ্রের কোন যোগাযোগ নেই। বিএনপি পুরোদমে বিচ্ছিন্ন একটি রাজনৈতিক দল। তাই দলের দুর্বলতা ঢাকতে গিয়ে বারবার ভুলের জায়গাগুলো তুলে ধরছেন তারা।

সুভাস সিংহ রায় আরো বলেন, মূলত হতাশা থেকে দলকে ঐক্যবদ্ধ করার ব্যর্থ প্রয়াসের অংশ হিসেবে এমন সব কথা বলছেন বিএনপি নেতারা।

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, বুধবার (১৬ই জুন) একটি অনুষ্ঠানে বিভক্তি দূর করার কথা বলতে গিয়ে মূলত বিভক্তি সৃষ্টির শঙ্কার কথা বলেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল। তিনি বলেছেন, আমরা বিভক্তি বা বিভাজনের চিন্তা করব না। এই ধরণের কথা বলে আসলে সৃষ্ট ফাটলের বিষয়টিই স্পষ্ট করেছেন ফখরুল।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির অন্ধকার রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ অনুধাবন করে তৃণমূল নেতৃবৃন্দ দল থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন। উপজেলা নির্বাচন বর্জন করায় তৃণমূল রাজনীতিতেও প্রতিনিধিত্ব হারিয়েছে বিএনপি। সব মিলিয়ে হতাশা ও বিভক্তি সৃষ্টি হয়েছে দলের অভ্যন্তরে। কারণ রাজনীতি বাদ দিয়ে কূটনীতি ও সমালোচনা নীতিতে মশগুল হয়েছেন বিএনপি নেতারা। তাই কোন রকমের আলো দেখতে পারছে না তৃণমূল। এসব বুঝতে পেরেই ভাঙ্গন রোধ করতে বার বার বক্তব্য দিয়ে দলের বিভক্তি সামনে তুলে ধরছেন নেতারা। যা অপরিপক্ব রাজনীতি ছাড়া কিছু নয়।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি