বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১
  • প্রচ্ছদ » other important » বিএনপিতে ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ও রিজভীর দ্বন্দ্ব চরমে



বিএনপিতে ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ও রিজভীর দ্বন্দ্ব চরমে


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
23.06.2021

নিউজ ডেস্ক: শেষ পর্যন্ত বিএনপির ভাঙন, বিভক্তি ও অভ্যন্তরীণ কোন্দলের গুঞ্জনকে সত্য বলে স্বীকার করলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার। তবে ভাঙন রোধ করে সুদৃঢ় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে পারলে বিএনপি আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার (২২ জুন) ফেসবুকে চলা এক ভার্চুয়াল সভায় তিনি এ কথা বলেন। এ সময় ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বলেন, বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলে বিএনপি ভেঙে যাবে- বিএনপি নেতাদের নিয়ে অনেক কথা-বার্তা শোনা যাচ্ছে। আসলে এসব গুঞ্জনের কারণে দলের নেতাকর্মীরা আন্দোলনে নামছেন না। এক কথায় তারা কোনো সিনিয়র নেতাদের উপর আস্থা রাখতে পারছেন না বলেই দলের অভ্যন্তরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হচ্ছে এবং দল রাজনীতির কক্ষপথ থেকে ছিটকে পড়ছে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

তবে হতাশার মাঝেও আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি আরো বলেন, শত বিভক্তি সত্ত্বেও বিএনপি যদি অন্তত বেগম জিয়ার মুক্তি এবং সরকারবিরোধী আন্দোলনের বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ থাকতে পারে তবে আগামীতে দল রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসবে।

এদিকে জমির উদ্দিন সরকারের এমন সাহসী উচ্চারণে বিএনপির অভ্যন্তরে চলছে সমালোচনা ও নানা গুঞ্জন। অনেকেই তার সমালোচনা করে বলছেন, কেবলমাত্র আলোচনায় আসতে কৌশলে বিএনপির ভাঙন বিষয়ে মনগড়া গল্প বলেছেন ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন। তার মতো নেতারা ভাঙন রোধ না করে বরং ভাঙন ত্বরান্বিত করছেন বলেও গুঞ্জন উঠেছে বিএনপির রাজনীতিতে।

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ বলেন, জমির উদ্দিন যা বলেছেন তা তার ব্যক্তিগত অভিমত। বিএনপি কারো ব্যক্তি অভিমতে পরিচালিত হয় না। বিএনপি আজো বাংলাদেশের শক্তিশালী দল। শক্তিশালী দল হয়েও নেত্রীর মুক্তি আন্দোলন কেউ নামছেন না, এমন প্রশ্নে রিজভী বলেন- আমরা প্রতিনিয়ত আন্দোলনের মধ্যে আছি। আশা করি কোরবানির ঈদের পরেই কঠোর আন্দোলন শুরু হবে। আমি কিন্তু মাঝে মধ্যেই ঝুঁকি সত্ত্বেও মিছিল করছি। সুতরাং দলের বিভক্তি নিয়ে প্রকাশ্য গল্প না করে মিছিল করুন, প্রতিবাদ করুন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি