মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » মির্জা ফখরুলের শরিয়াবিরোধী বক্তব্যের জেরে ২০ দলীয় জোট ছাড়ছে ইসলামী দলগুলো!



মির্জা ফখরুলের শরিয়াবিরোধী বক্তব্যের জেরে ২০ দলীয় জোট ছাড়ছে ইসলামী দলগুলো!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
15.07.2021

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম জোট ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের শরিয়া আইনবিরোধী বক্তব্যের জেরে জোট ছাড়ার ঘোষণা দিল ইসলামী দলটি। বুধবার বিকেলে রাজধানীর পুরানা পল্টনে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ২০-দলীয় জোট ছাড়ার ঘোষণা দেয়। জানা গেছে, ২০ দলীয় জোটে অনেকগুলো ইসলামী দল আছে। বিএনপি মহাসচিবের ইসলামবিরোধী বক্তব্যে এসব দলের নেতারা ক্ষুব্ধ। অচিরেই এসব দলের নেতারা জোট ছাড়ার ঘোষণা দেবেন।

দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জমিয়তের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বাহাউদ্দিন জাকারিয়া বলেন, ‘আজ থেকে জমিয়ত জোটের কোনো কার্যক্রমে সক্রিয় থাকবে না।’

জোট ছাড়ার কারণ প্রসঙ্গে মাওলানা জাকারিয়া বলেন, বিএনপির মহাসচিব শরিয়াহ আইনে বিশ্বাসী না বলে বক্তব্য দিয়েছেন। আমরা ইসলামী দল। যে জোটের প্রধান দলের মহাসচিব শরিয়া আইনে বিশ্বাস করেন না, তাদের সাথে জোটে থাকা সম্ভব না। এছাড়াও সম্প্রতি আলেম-ওলামাদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ না করা, জমিয়তের মহাসচিব নূর হোসেন কাসেমীর মৃত্যুতে বিএনপির পক্ষ থেকে সমবেদনা না জানানোয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। নেতাকর্মীরা বলছেন, ইসলামী মূল্যবোধের প্রতি বিএনপির আস্থা নাই, এই দলের সাথে জোটে থাকার অর্থ নেই। ফলে আমরা জোট ছেড়ে যাচ্ছি।

জানা গেছে, চার দলীয় জোট সম্প্রসারণ করে বিএনপির নেতৃত্বে ২০১২ সালের ১৮ এপ্রিল ১৮ দল এবং পরবর্তীতে আরও ২টি দলের সমন্বয়ে ২০ দলীয় জোট গঠিত হয়। এই জোটে আছে ইসলামী ঐক্যজোট, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল,বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি।

সূত্র জানায়, ২০ দলীয় জোটে শরিক দলের যথাযথ মূল্যায়ন না করা, সম্প্রতি শরিকদের সঙ্গে পরামর্শ না করেই তিনটি আসনের উপনির্বাচন এককভাবে বর্জন করা,জোটের যৌথ কোনো কার্যক্রম না থাকা নিয়ে বিএনপির ওপর বিরক্ত প্রতিটি দল। এরমধ্যে বিএনপির মহাসচিবের ইসলামবিরোধী বক্তব্যে ক্ষুব্ধ জোটভুক্ত ইসলামী নেতারা।

বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টির মহাসচিব জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেন, জোট এমনিতেই অনেক দিন ধরে অকার্যকর। তারেক রহমান জোটকেও নিজের দল মনে করেন। সব সিদ্ধান্ত একাই নেন। তাহলে আর জোটের অন্য দলের কাজ কি? এরমধ্যে মির্জা ফখরুল বক্তব্য দিলেন, তারা শরিয়া মানেন না। এখন যারা শরিয়া মানে না, তাদের সাথে জোটে থাকব কীভাবে! খুব দ্রুত আমরা নেতাদের সাথে বসে জোট ছাড়ার ঘোষণা দেন।

এদিকে ইসলামী ঐক্যজোট এবং খেলাফত মজলিসের নেতারাও বিষয়টি নিয়ে নিজেদের মধ্যে কথা বলেছেন বলে জানা গেছে। তারাও অচিরেই ২০ দলীয় জোট ছাড়ার ঘোষণা দেবেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি