মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » ‘সরকারের গুপ্তচর’ ভেবে ফখরুলকে বর্জন করছে বিএনপির একাংশ!



‘সরকারের গুপ্তচর’ ভেবে ফখরুলকে বর্জন করছে বিএনপির একাংশ!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
17.07.2021

নিউজ ডেস্ক: খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন নিয়ে ব্যর্থতার পর দলের সিনিয়র নেতাদের বড় একটি অংশ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ‘সরকারের গুপ্তচর’ মনে করছেন। তাদের দাবি, সরকারের সঙ্গে গোপন সম্পর্ক এবং দলীয় নানা খবরাখবর পাচার করায় খালেদার মুক্তি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে দলটি- এমনটাই বাংলা নিউজ ব্যাংকে জানিয়েছে বিএনপির একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র।

সূত্রে প্রকাশ- সাম্প্রতিক দেশের নানা ইস্যুকে কেন্দ্র করে খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন জোরদার করতে পারলে সফলতা আসবে বলে বিশ্বাস করেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা। বিএনপির মধ্যে মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ বেশ কিছু তরুণ নেতারা মনে করছেন, সরকারবিরোধী আন্দোলনের এখনই সময়। তবে মির্জা ফখরুল এমনটা ভাবছেন না- আন্দোলনের বিরোধিতা করছেন তিনি।

এমন পরিস্থিতিতে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ আন্দোলনের পক্ষে যে সমস্ত নেতৃবৃন্দ আছেন তারা মনে করছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে সরকারের গোপন একটি সম্পর্ক রয়েছে। এ কারণেই তিনি ২০১৮ এর নির্বাচন নিয়ে রীতিমতো জোর করে বিএনপিকে নিয়েছিলেন। তার কারণেই বিএনপির হাতেগোনা কয়েকজন সদস্য সংসদে গিয়েছেন। ফলে বিএনপি এখন একটি বিবৃতিসর্বস্ব দলে পরিণত হয়েছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যতদিন বিএনপি মহাসচিব থাকবে ততদিন বিএনপি`র পক্ষে কোনো আন্দোলন করা সম্ভব নয়। তাকে বর্জন করে বিএনপির রাজনীতি এগিয়ে নিয়ে যাওয়া উচিত।

এদিকে বিএনপির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রভাবশালী নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আন্দোলনের পক্ষে না থাকায় দলের একটি অংশ এখনই বড় ধরনের আন্দোলনে যেতে আগ্রহী নন। মির্জা ফখরুলের মতে বিএনপির এখন সাংগঠনিক দুর্বলতা রয়েছে। এখন সরকারবিরোধী কর্মসূচি ঘোষণা করে আন্দোলনে গেলে খালেদা জিয়ার মুক্তি অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়তে পারে।

এছাড়া করোনাভাইরাসে প্রতিদিন মৃত্যু এবং আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এমন মহামারীর সময় যদি সরকারবিরোধী আন্দোলন করা হয় তাহলে সেই আন্দোলনে জনগণ সায় দেবে না বরং জনগণ বিরক্ত হতে পারে বলে মত দিয়েছেন ফখরুল।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্বে বিভক্তি। মনোনয়ন বাণিজ্য থেকে শুরু করে দলীয় নানা কর্মকাণ্ডে দলের ভিতরেই বিতর্কিত তারেক রহমান। দলটির মা-ছেলে দুইজনই দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। এমন একটা পরিস্থিতিতে বিএনপির হাল ধরে রেখেছিলেন মির্জা ফখরুল। দলের ভিতরেই মির্জা ফখরুলের মতো একজন ক্লিন ইমেজের রাজনীতিবিদ সম্পর্কে এমন মন্তব্যই প্রমাণ করে রাজনীতির মূলধারা থেকে দলটি ছিটকে পড়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি