মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » খালেদার মুক্তির ‘রাজনীতি’ বেশি জরুরী তারেকের কাছে!



খালেদার মুক্তির ‘রাজনীতি’ বেশি জরুরী তারেকের কাছে!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
25.07.2021

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির চেয়ে তার মুক্তিকে কেন্দ্র করে রাজনীতি করাকেই বেশি জরুরী বলে ভাবছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান পলাতক আসামি তারেক রহমান। দলীয় সূত্র জানিয়েছে, দীর্ঘদিন জেলে থাকলেও খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে রাজপথে আন্দোলন কিংবা সরকারের কাছে মাফ চেয়ে জেল থেকে বের করতে তেমন উদ্যোগ নেননি তারেক রহমান। বরং সরকার খালেদাকে বন্দী করে রেখেছে– এই বিষয়টি দেখিয়ে রাজনীতি করাকেই তিনি জরুরী মনে করছেন।

লন্ডন বিএনপির একটি সূত্র জানায়, ঈদ উপলক্ষে তারেক রহমান তার লন্ডনের বাড়িতে স্থানীয় বিএনপির নেতাদের সাথে দেখা করেন। সেখানে খালেদার মুক্তি নিয়ে আলোচনা তোলেন বিএনপির নেতারা। তবে তারেক তেমন আগ্রহ দেখাননি। বরং খালেদাকে সরকার জোর করে আটকিয়ে রেখেছে এমন প্রচারণা চালানোতেই তার আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালিক বলেন, ম্যাডাম এতদিন ধরে সাজা ভোগ করেছেন। রাজপথে আন্দোলনে না হলেও বয়স বিবেচনায় সরকারের কাছে ক্ষমা চেয়ে ম্যাডামকে মুক্ত করা যায়। ম্যাডাম মুক্ত হলে বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে আবার দেশে দিয়ে বিএনপির হাল ধরতে পারতেন। এতে দলের শক্তি বাড়ত। কিন্তু তারেক রহমানের এ বিষয়ে কোন আগ্রহ নেই। তার কথা শুনে মনে হয়, ম্যাডাম জেলে থাকলেই তার লাভ।

বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, খালেদা জিয়া জেলে যাওয়ার পর থেকে তারেক রহমান বিএনপির সব নিয়ন্ত্রণ করছেন। কিন্তু দলটি আরও দুর্বল হয়েছে। রাজপথে কোন উপস্থিতিই নেই দলটির। বিএনপির নামই মানুষ ভুলতে শুরু করেছে। কিন্তু খালেদাকে মুক্ত করার জন্য কোন উদ্যোগ নেই দলটির। তারেকের মত একটা অযোগ্য লোক অবশ্য তাই করবে। জোর করে এতবড় একটা দলের প্রধান হয়ে আছে। খালেদার মুক্তি হলে সে দলের নিয়ন্ত্রণ হারাবে। এই ভয়েই মূলত খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার কোন উদ্যোগ নেই তারেকের। সে বিদেশে আরাম-আয়েশ করে দিন কাটাচ্ছে। অথচ খালেদা জিয়াসহ হাজার হাজার বিএনপির নেতাকর্মী কষ্টে আছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় জানান, আমাদের মিটিংয়েও ম্যাডামের মুক্তির প্রসঙ্গ আসলে তারেক সাহেব পাশ কাটিয়ে যান। তার কাছে ম্যাডামের মুক্তির চেয়ে এটি নিয়ে রাজনীতি করাই বেশি লাভবান বলে মনে হচ্ছে। এতে তিনি দলের প্রধান হিসেবে থাকার সুখ পাচ্ছেন, কিন্তু বিএনপির ক্ষতি হচ্ছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি