রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১



কোরবানির মাংস খাওয়া নিয়ে ব্যস্ত বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
26.07.2021

নিউজ ডেস্ক : বিগত ১৪ বছর যাবত বিএনপির একই কথা। ঈদের পরে হবে কঠোর আন্দোলন। তবে ২৮টি ঈদ পার হলেও বিএনপি নেতাদের আন্দোলন তো দূরের কথা, টং দোকানে বসে এক সঙ্গে আড্ডা দিতেও দেখা যায় না। যথারীতি এবারের কোরবানির ঈদ আসার আগেও বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিলো, ঈদুল আজহার পর কঠোর আন্দোলন হবে। তবে আন্দোলন না করে কোরবানির মাংস খাওয়া নিয়েই ব্যস্ত বিএনপি। দলের একাধিক নেতাকর্মীর সঙ্গে এমনটাই জানা গেছে।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, বরাবরের মতো এবারো ঈদের আগে আন্দোলনের কথা বললেও আন্দোলনে আপাতত যেতে চাচ্ছি না আমরা। সারা দেশে লকডাউন চলছে। তাছাড়া ঈদ উপলক্ষে ছাত্রদল ও যুবদলের অনেকেই আনন্দ ফুর্তি করে মাংস খাচ্ছে। এ মুহূর্তে আন্দোলন দলে বিএনপির সকল নেতা উপস্থিত হতে পারবে না। তবে লকডাউন শেষ হলে আমরা আন্দোলনে যাবো।

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক সিনিয়র নেতা বলেন, ঈদ শেষে বিএনপির খাতা শূন্য, কোনো অর্জন নেই। কর্মসূচি নির্ধারণ করতে করতেই কোরবানির ঈদ শেষ হয়ে গেলো। বিএনপির রাজনীতি সীমাবদ্ধ ছিল অনলাইন প্রেস ব্রিফিং, ঘরোয়া বৈঠক ও টেলিভিশন টকশোতে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ‘কঠোর আন্দোলন’ করার কথা বললেও বাস্তবে তা করতে পারেনি নেতারা। দলীয় নেত্রী হাসপাতালে রয়েছেন। তার অনুপস্থিতিতে লন্ডনে অবস্থানরত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সিনিয়র নেতাদের সমন্বয়ে দল পরিচালনা করছেন। দলীয় প্রধানের মুক্তির দাবিতে সারাদেশে অনশন, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, মশাল মিছিল এবং দেশব্যাপী বিভাগীয় সমাবেশ কর্মসূচি পালনের প্রতিশ্রুতি দিলেও বাস্তবতা ভিন্ন। এতে অনাস্থা বেড়েছে তৃণমূলের।

বিএনপি নেতাকর্মীদেরই দাবি, গত কয়েক মাস আগে খালেদা জিয়ার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার ইস্যুকে ক্যাশ করে রাজপথে কোনো কার্যকর আন্দোলন গড়ে তুলে সরকারকে চাপে রাখতে পারেনি তারা।

দেশে ঘটে যাওয়া প্রতিটি নির্বাচনে ভরাডুবি লেগেই রয়েছে। বিগত দুই বছর ধরে বিএনপিতে চলছে পদত্যাগের খেলা। ভাইস চেয়ারম্যান মোর্শেদ খানও দিয়েছে পদত্যাগের ঘোষণা। এর একদিন পরই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমানের রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর খবর আসে।

এছাড়া জেলা ও কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে কয়েকজন দল থেকে চলে যান। বিএনপির সহ-অর্থ-বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহাব উদ্দিন, নির্বাহী কমিটির সদস্য কণ্ঠশিল্পী মনির খান, ইসমাইল হোসেন বেঙ্গলসহ আরো অনেকেই। অথচ অর্জনের খাতা শূন্য বলে সমালোচিত হচ্ছে। অনাস্থা দেখা দিয়েছে তৃণমূলে। আর এ কারণে ঈদের পর আন্দোলনের ডাক দিলেও বর্তমানে আন্দোলনে যেতে পারছে না বিএনপি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি