মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » হেফাজতকে নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের তাণ্ডবের পরিকল্পনা!



হেফাজতকে নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের তাণ্ডবের পরিকল্পনা!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
27.07.2021

নিউজ ডেস্ক: বরাবরই আগস্ট মাস এলেই বিএনপি-জামায়াত নানা রকম অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করে দেশে। প্রথম দিকে জাতির পিতার মৃত্যুবার্ষিকীতে মিথ্যা জন্মদিনের কেক কেটে জাতির সাথে তামাশা করতেন খালেদা জিয়া। এখন জঙ্গি, সন্ত্রাসী এবং উগ্র মৌলবাদী গোষ্ঠী দিয়ে দেশে হামলা-নাশকতার নীলনকশা করেন। আসন্ন শোকের মাসে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে হেফাজতকে নতুন করে উস্কে দিচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে জানা যায়, হেফাজতের বিভিন্ন নেতার সঙ্গে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের গোপন বৈঠক হয়েছে।

সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকা এক হেফাজত নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানায়, বিএনপির তরফ থেকে বলা হয়েছে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা করে কোনো লাভ হবে না। সরে আসাই ভালো। বরং মাদ্রাসা খুলে দেওয়া, আটক নেতাকর্মীদের মুক্তিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আন্দোলন এবং দুই-একটা বড় নাশকতা করলে সরকার চাপে পড়বে। আর এই আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই।

বিএনপির পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, টাকা পয়সা যা লাগে ব্যবস্থা করা হবে। কিন্তু এই আন্দোলন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করতে মাঠে থাকে হেফাজকে সঙ্গে থাকবে জামায়াতও।

এদিকে বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে, বিএনপির দলীয় ভঙ্গুরতায় সরকারবিরোধী আন্দোলনে যেতে আগ্রহী নয় তারা। আবার আন্দোলনের প্রশ্নে দলটিতে বিভক্তিও রয়েছে। এরকম বাস্তবতায় বিএনপি-জামায়াত জোট চাইছে হেফাজতকে সামনে রেখে নতুন করে তাণ্ডব সৃষ্টি করতে।

তবে হেফাজতের অধিকাংশ নেতাই এখন আন্দোলনে যাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী নয় বলে জানা গেছে। তারা মনে করছেন, মার্চের ঘটনার পর হেফাজতের বিপুল পরিমাণ নেতা-কর্মী গ্রেপ্তার হয়েছেন এবং এই সমস্ত আটকের ঘটনা হেফাজতকে দুর্বল করে দিয়েছে।

হেফাজতের অধিকাংশ নেতাই মনে করেন, এই সরকারের সঙ্গে সহবস্থানে থাকলেই শেষ পর্যন্ত হেফাজতের লাভ হবে। বরং আন্দোলন-সংগ্রাম করলে হেফাজত ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তারপরও হেফাজতের উগ্রবাদী অংশকে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করছে বিএনপি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি