মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » ঢাকা উত্তর–দক্ষিণে বিএনপির নতুন কমিটি নিয়ে উত্তেজনা



ঢাকা উত্তর–দক্ষিণে বিএনপির নতুন কমিটি নিয়ে উত্তেজনা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
02.08.2021

নিউজ ডেস্ক: হাবীব উন নবী খান সোহেল ও আবদুল কাউয়ুমকে সরিয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখায় আহ্বায়ক কমিটি দিয়েছে বিএনপি। এতে উত্তরের নেতৃত্বে এসেছেন আমান উল্লাহ আমান। আর দক্ষিণে আবদুস সালাম। দুজনই বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য।

আমান ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি, আর আবদুস সালাম অবিভক্ত ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব ছিলেন। আজ সোমবার আমানের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর উত্তরে ৪৭ সদস্যের এবং সালামের নেতৃত্বে দক্ষিণে ৪৯ সদস্যের কমিটি দিয়েছে বিএনপি। আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদকদেরও নতুন কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখা হয়নি। ঢাকা দক্ষিণের সদস্যসচিব করা হয়েছে রফিকুল ইসলামকে। আর উত্তরের সদস্যসচিবের দায়িত্বে এসেছেন সাবেক ফুটবলার আমিনুল হক।

আজ সোমবার বিকেলে গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে এই কমিটি ঘোষণা করা হয়। বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তরের চলতি দায়িত্বে থাকা কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স জানান, দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন।

তবে এই কমিটি ঘোষণার পরই নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। সূত্র জানিয়েছে, শিগগিরই সংবাদ সম্মেলন করে এই কমিটি প্রত্যাখ্যান করবেন আগের কমিটির নেতারা। গত কমিটির নেতাদের দাবি কোন ধরনের ব্যর্থতা না থাকলেও বিশেষ মহলের ইঙ্গিতে এই কমিটি করা হয়েছে।

হাবীব উন নবী খান সোহেল বলেন, আমাকে সরাতে অনেক দিন ধরে সক্রিয় মির্জা আব্বাস। মাঠে না থাকলেও টাকা দিয়ে দলের নেতাদের কিনেছেন তিনি। আমি মাঠে থেকে গুলি খেয়ে, জেলে গিয়েও পদ রক্ষ করতে পারলাম না। দলের জন্য এত ত্যাগ করার পরেও যদি এই পরিণতি হয় তবে ভবিষ্যতে মানুষ বিএনপির প্রতি নিরুৎসাহিত হবে। তারেক রহমানকে এই কমিটি পুনর্বিবেচনার অনুরোধ জানাই।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আগের কমিটির কেউ কেউ দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছেন। কিন্তু সবাইকে সরানো ঠিক হয়নি। এতে মাঠের কর্মীরা নিরুৎসাহিত হবে। নতুন কমিটির ঘোষণায় অনেকে ক্ষুব্ধ হয়েছেন। আমি আশা করব, টাকার কাছে সব কিছুর পরাজয় যাতে না হয়। এতে দলেরই ক্ষতি হব।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি