মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১



ফেসবুক থেকে খালেদা-তারেকের ছবি সরাচ্ছেন নেতাকর্মীরা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
11.08.2021

নিউজ ডেস্ক : ক্ষমতা থেকে ছিটকে পড়ার পর ধীরে ধীরে রাজপথ থেকে ছিটকে গিয়ে ফেসবুককে শেষ ভরসা হিসেবে ব্যবহার করছে বিএনপি। ফেসবুকের মাধ্যমে সরকার বিরোধী গুজব এবং নিজেদের রাজনৈতিক বৈঠক করছেন তারা। এমন প্রেক্ষাপটে দলের অভ্যন্তরেই অভিযোগ উঠেছে, বিএনপির রাজনীতি এখন ফেসবুকেই সীমাবদ্ধ।

দেশের জেলা পর্যায়ের নেতাদের এক করতে পারছে না বিএনপির হাইকমান্ড। সে চেষ্টায় ব্যর্থ বিএনপি। সর্বশেষ সিলেটের দায়িত্ব নেবার কথা বললে, স্থানীয় কোনো নেতা সিলেট বিএনপির দায়িত্ব নিতেই রাজি হননি। মামলার ভয়েই সিলেটের মতো গোটা দেশের জেলাগুলোতে দায়িত্ব নিতে চাচ্ছেন না নেতারা। তাই মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়েই চলছে বিএনপি।

এমন প্রেক্ষাপটে শুধু মাঠ থেকেই নয়, বরং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সক্রিয়তা থেকেও নিজেদের গুটিয়ে নিচ্ছেন দলটির মধ্যম ও তৃণমূলের নেতারা। গত কয়েক বছর মাঠে সরব না থাকলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, বিশেষ করে ফেসবুকে সরব ছিলেন বিএনপির বিভিন্ন সারির নেতারা। হঠাৎ করেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড বন্ধ করে দিয়েছে তারা।

এমনকি লক্ষ্য করা গেছে, গত কয়েক বছর ধরে বিএনপির পদধারী অনেক নেতা তাদের ফেসবুক প্রোফাইল থেকেও দলীয় প্রতীক, বিএনপির প্রতিষ্ঠা জিয়াউর রহমান তার স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও পুত্র তারেক রহমানের ছবি সরিয়ে ফেলেছেন।

গত কয়েক মাস আগেও বিএনপির নেতারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিএনপির পক্ষে বিভিন্ন যুক্তি দিয়ে সরকারবিরোধী পোস্ট করলেও ইদানীংকালে তা ম্লান হয়ে গেছে। ভাইস চেয়ারম্যান, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদকসহ সম্পাদকীয় পদধারী অনেকে আগের প্রোফাইল বদল করেছেন। এছাড়াও গা ঢাকা দিতে অনেকে কাভার ফটোও পরিবর্তন করেছেন। এমনকি রাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে কোনো পোস্ট পর্যন্ত দিচ্ছেন না তারা।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান পদের এক নেতা বলেন, বিএনপির এবারের কাউন্সিলের কাঠামোতে বড় ধরনের রদবদলের আভাস পেয়েছি। দলের জন্য অনেক কাজ করেও দল থেকে মূল্যায়ন না পাওয়ায় শুধু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নয়, সকল পর্যায় থেকেই নেতা-কর্মীরা নিজেদের গুটিয়ে নিচ্ছেন। আসন্ন কাউন্সিলেও অর্থের বিনিময়ে পদ বিক্রি হওয়ার শঙ্কায় আগে থেকেই নিজেদের গুটিয়ে নিচ্ছেন নেতারা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি