বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের দ্বন্দ্বের বলি হচ্ছেন বেগম জিয়া



বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের দ্বন্দ্বের বলি হচ্ছেন বেগম জিয়া


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
13.08.2021

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আদায়ে আইনি ব্যর্থতা ও আইনজীবী সংগঠনের কমিটি নিয়ে নেতাকর্মীদের দ্বন্দ্ব এখন চরম আকার ধারণ করেছে। কমিটিতে পদ না পাওয়ায় এরই মধ্যে বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামালের কার্যালয়ে ভাংচুর চালিয়েছে দলটির পদবঞ্চিত আইনজীবীরা।

ফলশ্রুতিতে, বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের ঐক্যের মধ্যে ফাটল দেখছেন দলটির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। এতে করে বিএনপি আদালত পাড়াতেও দুর্বল হয়ে পড়বে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকারের মতো নেতারা।

দলপন্থী আইনজীবীদের চলমান দ্বন্দ্বে বিএনপি সার্বিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলে মনে করেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন। তিনি বলেন বিএনপির রাজপথ বিমুখতার জন্যই কিন্তু অন্তকোন্দলের ঘটনাগুলো বাড়ছে। রাজপথে, আদালত পাড়ায় বিএনপি যদি সক্রিয় থাকতো তাহলে আজকে নেতা-কর্মীদের পদত্যাগ, মান-অভিমান কেটে যেত। ম্যাডাম জিয়ার বিরুদ্ধে থাকা ৩৭টি মামলা পরিচালনা নিয়ে দলের আইনজীবীদের মধ্যে দীর্ঘদিনের একটি দ্বন্দ্বপূর্ণ মনোভাব চলে আসছে। খালেদা জিয়ার কোন মামলা দলের কোন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী নেতার চেম্বার থেকে প্রস্তুত হবে, তা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে মতবিরোধ সৃষ্টিও হয়েছে। যা দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে।

তিনি আরো বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে অসন্তোষ বেড়েছে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কমিটি নিয়ে। সত্যি বলতে, ফোরামের নতুন কমিটিতে খালেদা জিয়ার মামলা পরিচালনা এবং দলের মিছিল, কিংবা সভায় নিয়মিত থেকেও অনেক ত্যাগী নেতাকর্মী জায়গা করতে পারেননি। ফোরামের আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব কে হবেন, তা ঠিক করে দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। গ্রুপিং-লবিংয়ের কারণে আদালত পাড়াতেও বিতর্কিত হচ্ছে বিএনপি। আশা করি, অচিরেই এই ভুল-বোঝাবুঝি ও পদপ্রত্যাশার সংঘর্ষ বন্ধ করতে সক্ষম হবেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

এদিকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ও ফোরামের সাবেক সদস্য সচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সত্যি বলতে-বৃহত্তর একটি রাজনৈতিক দলে মতবিরোধ থাকতেই পারে। তবে কমিটিতে পদ না পাওয়ায় সহকর্মীদের হেনস্থা করা, কার্যালয়ে ভাংচুর করার বিষয়টি দুঃখজনক। সত্যি বলতে, বেগম জিয়াকে মুক্ত করা বাদ দিয়ে দলের নেতা-কর্মীরা পদ বাণিজ্য নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। পদ বাণিজ্যের অপরাজনীতির কারণে বিএনপি রাজপথের রাজনীতি থেকে ছিটকে পড়ছে। এই পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে আগামীতে বিএনপির ঘুরে দাঁড়ানো সত্যিই চ্যালেঞ্জিং হয়ে পড়বে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি