বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » ‘ভাড়া করা লোক’ নিয়ে পুলিশের উপর বিএনপি কর্মীদের হামলা!



‘ভাড়া করা লোক’ নিয়ে পুলিশের উপর বিএনপি কর্মীদের হামলা!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
17.08.2021

নিউজ ডেস্ক: নিজেদের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড নেই। দলীয় নেতাকর্মীরাও রয়েছেন হিমনিদ্রায়। এমতাবস্থায় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিতে জনপ্রতি ৭০০ টাকা আর ১ প্যাকেট বিরিয়ানির বিনিময়ে শ’খানেক লোক ভাড়া করে নিয়ে আসে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির নেতৃবৃন্দ। কিন্তু তাদের সেই গোপন কথাটি আর গোপন থাকে না। পুলিশের সঙ্গে কথা কাটাকাটি ও সংঘর্ষের এক পর্যায়ে দলছুট হয়ে ছুটতে থাকে ‘ভাড়াটে’ লোকগুলো। সে সময় তাদের সঙ্গে কথা হয় এই প্রতিবেদকের।

তারা বাংলানিউজ ব্যাংককে বলেন, নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে এসেছেন তারা। স্থানীয় বিএনপির এক প্রভাবশালী নেতা তাদেরকে বলেছেন, মিছিলে গেলে নগদ ৭শ’ টাকা আর দুপুরের খাওয়ার জন্য এক প্যাকেট বিরিয়ানি দেওয়া হবে। তাই এলাকা থেকে প্রায় ১৭/১৮ জন এসেছে। যাদের অধিকাংশই পেশায় ভ্যানচালক, চায়ের দোকানদার কিংবা সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করেন। একইভাবে গাজীপুর, পূবাইল ও ঢাকার বিভিন্ন জায়গা থেকেও মানুষ ‘ভাড়া’ করে এনেছে বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

তথ্যসূত্র বলছে, অনুমতি না নিয়ে এসব ‘ভাড়া করা লোক’ নিয়ে ১৭ আগস্ট (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চন্দ্রিমা উদ্যানে প্রবেশের চেষ্টা করে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির নেতৃবৃন্দ। এ সময় অনুমতি আছে কিনা জানতে চাইলে তারা কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। আত্মরক্ষার্থে ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট ছোঁড়ে। এ সময় ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে ভাড়াটে লোকগুলো এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করতে থাকে। এক পর্যায়ে গাছের আড়ালে গিয়ে আশ্রয় নেয়।

এ সময় একজনের সঙ্গে কথা হয় সেখানে দায়িত্বরত এই প্রতিবেদকের। তিনি বলেন, আগে জানলে এখানে আসতাম না। এখন আমার কিছু হয়ে গেলে এই দায় কি বিএনপির লোক নেবে? পরিবারের মুখে খাবার কি তারা তুলে দেবে? জানি কখনই দেবে না। কারণ, তারা ক্ষমতায় থাকাকালেও মানুষের পাশে থাকেনি। আর এখন তো ক্ষমতায় নেই তারা। কিছু বললেই সিম্প্যাথি কুড়ানোর আশায় নানা অজুহাত দেখাবে, নাটক করবে। তারা এমনই, এটাই তাদের চরিত্র। গাছে উঠিয়ে মই কেড়ে নেবে।

এ বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিতে গিয়ে যে ঘটনা ঘটেছে, তা সম্পূর্ণ অনাকাঙ্খিত। এর পেছনে কে বা কারা জড়িত, তা খতিয়ে দেখা হবে। দলের কেউ এ ঘটনায় জড়িত থাকলে, তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

‘ভাড়া করে আনা’ মানুষের বিষয়ে বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা ও দলের তৃতীয় ক্ষমতাধর ব্যক্তি বলেন, এ সম্পর্কে আমার কাছে
কোনো তথ্য নেই। তবে যদি এই কাজ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির নবগঠিত কমিটি করে থাকে। তবে আমি নয়, খোদ তারেক রহমানই তাদেরকে শাস্তি দেবেন। আর সেটা দলীয় গঠনতন্ত্র মেনেই।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি