বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১



ঢাকা মহানগর কমিটি নিয়ে বিভক্ত বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
20.08.2021

নিউজ ডেস্ক: ঢাকা মহানগর বিএনপির কমিটি নিয়ে বিতর্ক থামছেই না। আর দলের শীর্ষ নেতারাও এ বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। স্পষ্টতই দলের শীর্ষ নেতারা ঢাকা মহানগর কমিটি নিয়ে বিভক্ত।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, ঢাকায় যারা ক্রিয়াশীল রাজনৈতিক নেতাকর্মী ছিলেন, তারা নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন। আর তাদের এ নিষ্ক্রিয়তা বিএনপির জন্য নতুন মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বলা হয়েছিল যে, আন্দোলনে ব্যর্থতার জন্যই ঢাকা মহানগর কমিটি বাতিল করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি করা হয়েছে। কিন্তু এখন এ কমিটি ঘোষণার পর যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, তাতে আন্দোলন তো দূরের কথা সংগঠন টিকিয়ে রাখাই বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। দলের অধিকাংশ শীর্ষ নেতা এ কমিটি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

এ কমিটি প্রত্যাখ্যান করেছেন ঢাকা মহানগরীর বিএনপির কর্মীরাও। আর এ পরিস্থিতিতে শেষ পর্যন্ত ঢাকা মহানগর কমিটি নিয়ে নতুন করে মূল্যায়ন হতে পারে বলে বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

গতকাল ঢাকা মহানগর কমিটি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা সম্পর্কে লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়াকে ব্রিফ করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, এ ব্রিফিংয়ে তারেক জিয়াকে তিনটি বিষয় সম্পর্কে অবহিত করেন বিএনপি মহাসচিব।

প্রথমত, যাদের এ কমিটিতে জায়গা দেওয়া হয়েছে তারা নিজেরাই কমিটিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন না। কারণ তারা নেতাকর্মীদের কাছে ভিলেনে পরিণত হয়েছেন। ফলে তাদের পক্ষে কাজ করা কঠিন হয়ে পড়ছে। তারা কারো সঙ্গে সৌজন্য দেখা-সাক্ষাৎ ও মতবিনিময়ও করতে পারছেন না।

দ্বিতীয়ত, যারা দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা মহানগরকে ঘিরে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেছেন, বিভিন্ন আন্দোলন সভা-সমাবেশে উপস্থিত থেকেছেন, তারা এখন স্বেচ্ছায় নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন। এর ফলে দলের সামনের দিনগুলোতে কোনো কর্মসূচিতে ন্যূনতম লোকসংখ্যা পাওয়াও কঠিন বিষয়ে পরিণত হবে।

তৃতীয়ত, ঢাকা মহানগরের কমিটির ফলে সারাদেশে একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে এবং দলের মধ্যে অনেকেই নিষ্ক্রিয় থাকার কৌশল গ্রহণ করছেন। এর ফলে বিএনপি সামনের দিনগুলোতে সংগঠন হিসেবে টিকে থাকবে কিনা, সেটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, সংগঠনের হৃদপিণ্ড হলো ঢাকা মহানগরী। একটি রাজনৈতিক সংগঠনের যদি ঢাকা মহানগরীর সংগঠন শক্তিশালী থাকে, তাহলে সেই সংগঠন সারাদেশে শক্তিশালী থাকতে পারে। বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচনগুলো বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় যে, যখন যে দল ঢাকা মহানগরীতে বেশি আসনে জয়ী হয়েছে তারাই সরকার গঠন করেছে।

তাদের মতে, ঢাকায় আন্দোলন করতে পারলেই শুধু সরকারকে অস্থিতিশীল অবস্থার মধ্যে ফেলা যায়। আর এ রকম বাস্তবতায় যেকোনো রাজনৈতিক দলের জন্যই ঢাকা মহানগরী একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। কিন্তু ঢাকা মহানগরী নিয়েই এখন বিএনপি বড় ধরনের সংকটের মধ্যে পড়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি