বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » গণমাধ্যমের নামে ‘গুজব সেল’ সৃষ্টি করছে জামায়াত-শিবির



গণমাধ্যমের নামে ‘গুজব সেল’ সৃষ্টি করছে জামায়াত-শিবির


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
22.08.2021

নিউজ ডেস্ক: বাজারে নামে-বেনামে প্রচলিত আইপি টিভিগুলোর একটি বৃহৎ অংশ বিতর্কিত রাজনৈতিক সংগঠন জামায়াতে ইসলামী ও এর ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। তাদের একমাত্র উদ্দেশ্য হচ্ছে, সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করা।

বিশ্বস্ত সূত্র বলছে, মূলধারার গণমাধ্যমে নিজেদের অবস্থান শক্ত করতে না পেরে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা এখন ঠাঁই নিয়েছে আইপি টিভিতে। তারা দেশের যত্রতত্র সরকারি অনুমোদন ছাড়াই রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থের জন্য গণমাধ্যমের নামে খুলে বসেছেন ‘গুজব সেল’।

আর সেখান থেকেই দেশবিরোধী চক্রের অর্থায়নে তারা নিজস্ব ‘পেইড এজেন্ট’ দ্বারা চালিয়ে যাচ্ছেন সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী অপপ্রচার। তাদের এমন অনৈতিক কর্মকাণ্ডে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে মূল ধারার আইপি টিভিগুলো।

নীতিনির্ধারকরা বলছেন, এখনই এসব কথিত টিভির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে না পারলে সমাজে গণমাধ্যম সম্পর্কে ভুল বার্তা যাবে। সবাই বিশ্বাস করতে শুরু করবে, সব গণমাধ্যমই এমন।

এক অনুসন্ধানে জানা গেছে, আইপি টিভি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের বর্তমান সভাপতির নাম মুহাম্মদ আতাউল্লাহ খান। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি ‘কর্নেল’ ফারুক রহমানের দল ফ্রিডম পার্টির রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। শুধু তাই নয়, তিনি এক সময় ছাত্রশিবিরের রাজনীতিতেও সম্পৃক্ত ছিলেন। এখন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলে খোলস বদলে তৈরি করেছেন ‘জনতার টিভি’ নামের আইপি টিভি।

এ বিষয়ে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা আইপি টিভির নামে নিজেদের স্বার্থ হাসিলের যে খেলা খেলছেন, তা এখনই থামানো উচিত। নতুবা মূলধারার গণমাধ্যমের সাংবাদিকতা একদিকে যেমন প্রশ্নবিদ্ধ হবে, অপরদিকে গণমাধ্যমের ওপর থেকে মানুষ আস্থা হারিয়ে ফেলবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি