বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » তারেকের পক্ষে কথা বলায় আমীর খসরুর ওপর ক্ষিপ্ত খালেদা



তারেকের পক্ষে কথা বলায় আমীর খসরুর ওপর ক্ষিপ্ত খালেদা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
27.08.2021

নিউজ ডেস্ক: দুই বছরেরও অধিক সময় কারাগার এবং দেড় বছর ধরে গুলশানের বাসায় অবরুদ্ধ থাকা প্রমাণিত দুর্নীতি মামলার আসামী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তবে দেড় বছর ধরে কারাগারের বাইরে থাকায় বর্তমানে বিএনপিতে অনেকেই বলছেন, চাইলেই বেগম জিয়া দলের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিতে পারেন। যদিও আমীর খসরু বলছেন ভিন্ন কথা। স্থায়ী কমিটির এই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য বলছেন, দল তারেক রহমানই চালাবেন। তাছাড়া তিনি তো খারাপও চালাচ্ছেন না।

জানা যায়, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর কথায় দারুণ ক্ষুব্ধ হয়েছেন খালেদা জিয়া।

রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন উঠেছে, শর্তসাপেক্ষে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কেনো এখনো কারাগারে যাচ্ছেন না, এ নিয়ে গাত্রদাহ শুরু হয়ে গেছে তারেকপন্থী নেতাকর্মীদের। কারণ তারা বুঝে গেছেন, খালেদার মুক্তি মানেই তারেক সাম্রাজ্যের পতন। পদ-পদবী হারাবেন তারা নিজেরাও। তাই তারা ইনিয়ে-বিনিয়ে তারেকের পক্ষে সাফাই গাওয়া শুরু করেছেন। আমীর খসরুও হয়তো তাদেরই একজন।

দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে, লন্ডনে সপরিবারে পলাতক তারেক রহমানের পছন্দের তালিকায় থাকা ব্যক্তিদের অন্যতম আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি অদ্যাবধি কখনোই তারেক রহমানের কথার বাইরে যাননি। এমনকি ভবিষ্যতে যাবেনও না। একারণেই সেই বিশ্বাস থেকে তারেক রহমান তার প্রতি প্রচণ্ড আস্থাশীল। সেই জায়গা থেকে জমির উদ্দিন সরকার বরাবরই তারেক বলতে অন্ধ।

তারই ধারাবাহিকতায় খালেদা জিয়ার মুক্তির পর গণমাধ্যমকে তিনি জানিয়ে ছিলেন, খালেদা জিয়া মুক্তি পেয়েছেন সাময়িকভাবে। তিনি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারবেন না, এটি আইনি নির্দেশনা। তাছাড়া ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান তো দল খারাপ চালাচ্ছেন না। মনে হয় তার হাতেই বিএনপি নিরাপদ। নেতাকর্মীরাও যথেষ্ট খুশি।

এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষক সুভাষ সিংহ রায় বলেন, বিএনপির নিজেদের ভেতরেই ঐক্য নেই। যার প্রমাণ দেশের জনগণ ইতোমধ্যে অনেকবার পেয়েছেন। এবার পেলেন আরও একবার। তাদের দলীয় নেত্রী এখনো অবরুদ্ধ রয়েছেন। অথচ সেদিকে তাদের কোন মাথাব্যথা নেই। সব মাথাব্যথা দলীয় নেতৃত্ব নিয়ে। এ থেকেই সহজে অনুমেয়, বিএনপি কতোটা অস্বচ্ছ রাজনৈতিক মতাদর্শে বিশ্বাসী!



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি