মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১



বিএনপির যেসব নেতারা দলের তথ্য পাচার করেন


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
07.09.2021

শমসের মুবিন চৌধুরী

নিউজ ডেস্ক : দুই বছর ধরে মুখ লুকিয়ে বসে থাকা, জাতীয় নির্বাচনগুলো লাগাতার পরাজয়, বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে ব্যর্থতা ও দলের ভঙ্গুর সাংগঠনিক অবস্থার জন্য দলটির নীতি-নির্ধারকদের দায়ী মনে করছেন বিএনপিত্যাগী নেতারা।

তাদের মতে, বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের কিছু নেতার দ্বিমুখী নীতি, বিভিন্ন মহলে আঁতাত ও নেতৃত্ব বদলের ষড়যন্ত্রের কারণে বিএনপি দিন দিন দুর্বল দল পরিণত হচ্ছে। বেইমান ও মীর জাফরদের কারণে বিএনপির রাজনৈতিক ভরাডুবি ঘটেছে বলেও মনে করছেন তারা।

বিএনপি ছেড়ে বিকল্প ধারায় যোগদানকারী নেতা শমসের মুবিন চৌধুরীর সাথে আলাপকালে বিএনপির দুর্দশা ও দলীয় নেতাদের ব্যর্থতার বিষয়ে জানা গেছে।

শমসের মুবিন চৌধুরী বলেন, আমি যখন ছিলাম, তখন পর্যন্ত বিএনপিতে মোটামুটি ঐক্য ছিল। এখন তার ছিটেফোঁটাও নেই। বিশেষ করে বেগম জিয়া জেলে যাওয়ার পর বেইমান ও বর্ণচোরা নেতারা তাদের খোলস পাল্টাতে শুরু করেন। দলের দুর্দিনে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, জমির উদ্দিন সরকার ও মির্জা আব্বাসরা লুকিয়ে ছিলেন। এরা বিএনপি করে ব্যক্তিস্বার্থের জন্য। এসব নেতারা দলের তথ্য পাচার করেন নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে। দায়িত্ব দিলেও অবহেলা করেন। বেগম জিয়ার নেতৃত্ব নিয়ে মনে হয় এদের প্রশ্ন আছে, যার কারণে দলের কর্মসূচিতে এদের দেখা যায় কম। যোগ্য নেতাদের বঞ্চিত রেখে অযোগ্যদের নিয়ে হইচই করার ফল নিজ হাতে পাচ্ছেন বেগম জিয়া ও তারেক রহমান। যোগ্য ও পরিক্ষিত নেতাদের অভাবে বিএনপি আজ বিলীন হওয়ার পথে হাঁটছে।

তিনি আরো বলেন, এক সময় নিবেদিত নেতারা বিএনপি করত। এখন দলটিতে মীর জাফরদের আনাগোনা বেশি হয়েছে। তথ্য পাচারের কারণে বিএনপি কোন কর্মসূচি সফল করতে পারে না। পারে না কোন দাবি আদায় করতে। বিএনপিকে কৌশলে জনবিচ্ছিন্ন করেছে কিছু স্বার্থপর ও সুবিধাবাদী নেতারা। দলটির বেশিরভাগ নেতাই তো বিভিন্ন পক্ষের এজেন্ট। দলের চেয়ে এদের কাছে অর্থ-বিত্তের দাম বেশি। স্বার্থের জন্য এরা দলকেও বিক্রি করতে পিছপা হয় না। যার কারণেই তো বেগম জিয়ার এই দুর্দিন, দলের দুর্দিন। বিএনপির এই দুর্দশার জন্য বেগম জিয়া ও তারেক রহমানও কম দায়ী নন। নিজেদের পক্ষের নেতার সংখ্যা বাড়াতে গিয়ে তারা দলে চোর, দুর্নীতিবাজ, আঁতাতকারী ও তথ্য পাচারকারী নেতাদের পদ দিয়েছেন। নিজেদের ভুলের মাসুল এখন দিতে হচ্ছে বেগম জিয়া ও তারেককে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি