মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১



বিএনপির ঐক্যের ডাকে সাড়া নেই!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
07.09.2021

ডেস্ক রিপোর্ট: সরকার পতনের আন্দোলন শুরু করতে প্রায় দিনই ঐক্য ঐক্য বলে রব তুললেও বিএনপির কথায় সাড়া দিচ্ছে না কোন দলই। গত নির্বাচনে ভয়াবহ পরাজয়ের পর বিএনপির সাথে জোট করতে আগ্রহ পাচ্ছে না কোন দলই। জানা গেছে, গত দুই বছর ধরে বিএনপি ডানপন্থী, বামপন্থী বিভিন্ন দলের সাথে বৈঠক করেছে। কিন্তু বিএনপির সাথে জোট করতে কোন দলই রাজি হয়নি। এমতাবস্থায় হতাশ বিএনপির সিনিয়র নেতারা।

সূত্র জানায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গণফোরামের সাথে জোট করে বিএনপি। ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হলেও সেই জোট তেমন কার্যকর হয়নি। নির্বাচনে বিশাল ব্যবধানে পরাজিত হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলের দুর্নীতি, হত্যা-খুন, সন্ত্রাস, বোমাবাজিতে অতিষ্ঠ জনগণ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকেও বর্জন করে। কারণ বিএনপির চরিত্রের কোন পরিবর্তন হয়নি। বিরোধী দলে থাকলেও আগুন সন্ত্রাস, দলের কমিটি গঠনের নামে চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি বন্ধ হয়নি। বিএনপির সাথে গিয়ে অবশিষ্ট মানসম্মানটুকুও হারিয়ে ফেলেছেন ড. কামাল হোসেন। ফলে আগামী নির্বাচনে বিএনপির সাথে জোটে থাকবেন না কামাল হোসেন। এছাড়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ব্যর্থতার পর কোন দলই আর বিএনপির সাথে জোট করতে রাজি হচ্ছে না।

জানতে চাইলে ড. কামাল হোসেন বলেন, বিএনপির সাথে স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াতে ইসলাম এবং বিভিন্ন মৌলবাদী দলের সম্পর্ক থাকায় জনগণ আমাদেরও বর্জন করেছে। গত নির্বাচনই তার প্রমাণ। তাই আগামী নির্বাচনে কোনভাবেই বিএনপির সাথে জোট করার সাহস পাচ্ছি না। জীবনের শেষ সময়ে এসে আবারও লজ্জার মুখে যাতে না পড়তে হয় সেজন্যই বিএনপির সাথে জোট করার বিপক্ষে ডা. কামাল।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, গত নির্বাচনেও আমরা বিএনপির সাথে জোট করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু জামায়াতসহ বিভিন্ন সাম্প্রদায়িক-মৌলবাদীর সঙ্গ না ছাড়ায় বিএনপির সাথে জোট করা সম্ভব হয়নি। এখনও সেই অবস্থা আছে। তাছাড়া বিএনপির নেতৃত্ব নিয়েও ঝামেলা আছে। তাদের নেতা তারেক রহমান লন্ডন থেকে এক কথা বলে, আবার দেশে বিএনপির অনেকেই তারেক রহমানকে মানে না। ফলে তাদের সাথে কাজ করা কঠিন। বিএনপি নিজেরা আগে ঠিক হোক, তারপর তাদের সাথে জোটের বিষয়ে চিন্তা করা যাবে।

জানতে চাইলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, আমরা তো জোট করতে চাই। তবে দলের অনেক সুবিধাবাদী নেতা তথ্য ফাঁস করে দেয়, ফলে দলের কাজে বাধার সৃষ্টি হয়। এছাড়াও আমাদের নেতা তারেক রহমানের কথা মেনে অনেকে কাজ করেন না। ফলে অন্য দল আমাদের সাথে ভরসা পাচ্ছে না। আশা করি কিছুদিনের মধ্যে এসব সমস্যার সমাধান হবে।

 



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি