মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » যে কারণে শর্মিলায় ভরসা রাখতে চাচ্ছে বিএনপি



যে কারণে শর্মিলায় ভরসা রাখতে চাচ্ছে বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
08.09.2021

নিউজ ডেস্ক: কারাগার থেকে দেড় বছর আগে জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন বেগম জিয়া। বর্তমানে যতই দিন যাচ্ছে, ততই যেন ‘চেয়ারপারসনসুলভ’ আচরণ স্পষ্ট হচ্ছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার। অথচ মুক্তির আগে তার পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, তিনি রাজনীতি থেকে দূরে থাকবেন।

নতুন খবর হলো, তিনি সাপের মত খোলস বদলে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে বৈঠকের পর এবার আগামী দিনের বিএনপির নেতৃত্ব নিয়ে ভাবছেন। তবে খালেদার করা খসড়া তালিকায় তারেক রহমানের পরিবর্তে সর্বাগ্রে ঠাঁই পেয়েছেন তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথি। আর এ খবর লন্ডনে তারেকের কাছে পৌঁছাতেই তিনি মনঃক্ষুণ্ণ হয়ে শর্মিলাকে মাইনাস করতে নতুন ফন্দি আঁটতে শুরু করেছেন।

নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানিয়েছে, অন্যান্যবারের চেয়ে এবারের কারামুক্তিকে ভিন্ন চোখে দেখছেন বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া। তার মতে, এবারের কারাজীবন তার জন্য রাজনৈতিক অভিশাপ। কারামুক্তির পর দলীয় নেতৃবৃন্দ ও পারিবারিক সূত্রে তিনি জেনেছেন, তারেক তার মুক্তির ব্যাপারে ফলপ্রসূ কোন পদক্ষেপ নেয়নি। উপরন্তু তার মুক্তির কথা বলে করেছে বাণিজ্য। কিন্তু এই স্রোতে গা ভাসায়নি শর্মিলা রহমান সিঁথি। সে বরং মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন তার মুক্তির জন্য। তাই সব বিবেচনা করে খালেদা দলের অনাগত দিনের নেতৃত্বভার অর্পণে তারেকের চেয়ে শর্মিলা রহমান সিঁথিকেই এগিয়ে রাখছেন বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জিয়া পরিবারের এক ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে, খালেদা জিয়া এখন কোকোর স্ত্রী শর্মিলার উপরে সম্পূর্ণ আস্থাশীল। কারণ, তিনি জেলে থাকা অবস্থায় শর্মিলা প্রায়ই দেশে এসে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতেন। খোঁজখবর নিতেন। তাছাড়া তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবায়দা রহমান দীর্ঘদিন ধরে দেশের বাইরে অবস্থান করা ও খালেদার কারামুক্তিতে ভূমিকা না রাখার কারণে জিয়া পরিবারের সম্মান রক্ষার্থে শর্মিলাকে নিয়েই নতুন করে ভাবছেন বিএনপি নেত্রী। আর এতে নারাজ তারেক রহমান। তিনি শর্মিলাকে হটিয়ে বিএনপির নিয়ন্ত্রণ নিজের কাছে রাখতে ষড়যন্ত্রের নতুন ছক কষছেন বলে গুঞ্জন উঠেছে।

এ ব্যাপারে বিএনপির দায়িত্বশীল নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, খালেদা জিয়া এখন মনে করেন, তারেক রহমান তার রাজনৈতিক কার্যক্রমে বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছেন। তিনি মায়ের চেয়ে বেশি ভালোবাসেন ক্ষমতাকে। আর এর প্রমাণ তিনি জেলে থাকা অবস্থাতেই পেয়েছেন। তাই বর্তমানে তারেকের প্রতি বিন্দুমাত্র আস্থা নেই খালেদা জিয়ার।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতির বৃত্তে আবদ্ধ বিএনপির পথচলা। বিশেষ করে বিএনপির পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিজের হাতে পেতে মরিয়া তারেক রহমান নিজের মাকেও জেলে রাখতে কুণ্ঠাবোধ করেননি। এখন যখন শুনছেন নেতৃত্ব চলে যাচ্ছে ছোট ভাইয়ের বৌ শর্মিলার কাছে, তখন তিনি প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে শুরু করেছেন তাকে হটানোর নতুন ষড়যন্ত্র। এ থেকে সহজেই অনুমেয়, তাদের পারিবারিক বিরোধ কতোটা চরমে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি