বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » তারেকের সঙ্গে যে সম্পর্কের জেরে যে পাঁচ নারী বিএনপির সিনিয়র নেতা



তারেকের সঙ্গে যে সম্পর্কের জেরে যে পাঁচ নারী বিএনপির সিনিয়র নেতা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
11.09.2021

পাঁচ নারী বিএনপির

নিউজ ডেস্ক: শুধু দুর্নীতি নয় বিভিন্ন সময়ে পরকীয়া কিংবা অবৈধ সম্পর্ক স্থাপন করে নারী নেত্রীদের দলে গুরুত্বপূর্ণ পদ বিতরণ করার বিস্তর অভিযোগ রয়েছে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, সশরীরে উপস্থিত হয়ে কিংবা হোয়াটসঅ্যাপ-ম্যাসেঞ্জারে তারেকের লালসা মিটিয়ে পদ বাগিয়ে নিয়েছেন অসংখ্য অযোগ্য নারী নেত্রীরা। চলুন জেনে নেয়া যাক তারেকের নারীপ্রীতি আদ্যোপান্ত….

ডালিয়া লাকুরিয়া: দেখতে সুন্দরী ও স্মার্ট হওয়ায় লন্ডনে সহজেই তারেকের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হন ডালিয়া লাকুরিয়া। পরবর্তীতে তারেকের আশীর্বাদে যুক্তরাজ্য বিএনপির প্রচার সম্পাদকের পদ পেয়ে যান সুন্দরী এই নারী। বিভিন্ন সময় তাদেরকে একান্তে দেখা গেছে বলেও গুঞ্জন রয়েছে। তাদের মাঝে অবৈধ সম্পর্কের কারণে উভয় পরিবারে বিষয়টি নিয়ে এখনও ঝামেলা হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা: সুন্দরী ও বাকপটু এই বিএনপি নেত্রী লন্ডনে তারেকের সাথে একান্তে সাক্ষাত করে সংরক্ষিত আসনের মনোনয়ন বাগিয়ে নিয়েছেন বলেও গুঞ্জন রয়েছে। তারেকের কারণে এখনো বিয়ে করতে পারেননি রুমিন এমন আলোচনা বিভিন্ন সময়ে ডালপালা মেলেছে বিএনপির রাজনীতিতে।

শামা ওবায়েদ: এক সময় তারেক শামার প্রতি চরম অনুরক্ত ছিলেন। শামাও সুযোগ দিতেন তাকে। যা নিয়ে জোবায়দার সাথে তারেকের দূরত্বও সৃষ্টি হয়। বিষয়টি জানার পর বেগম জিয়াও রাগ করে শামাকে তার কাছে ভিড়তে দিতেন না। তবে এখনও তারেকের সাথে শামা বিভিন্ন উপায়ে যোগাযোগ রাখেন এবং প্রতি ঈদে তাকে গোপনে উপহার পাঠান বলেও গুঞ্জন রয়েছে।

নিলুফার চৌধুরী মনি: সাবেক এই সাংসদের প্রতি আলাদা রকমের ভালোবাসা রয়েছে তারেকের। তাকে গুরুত্বপূর্ণ পদ না দেয়ায় বেগম জিয়ার সাথে ঝগড়াও করেছিলেন তারেক। এখনও তাদের মাঝে যোগাযোগ রয়েছে। সময় সুযোগ পেলেই মনিকে ফোন করে অতীতের স্মৃতিচারণ করেন বলে জানা গেছে।

এ্যাড. ফাহিমা মুন্নী: সুশ্রী ও উচ্চবিত্ত পরিবারের সদস্য ফাহিমা মুন্নীর সাথে সম্প্রতি তারেকের হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এই নারী আইনজীবীর কাছে আইনি পরামর্শের নামে অবৈধ সম্পর্ক স্থাপনেরও অভিযোগ রয়েছে তারেকের বিরুদ্ধে। যার কারণে যোগ্য অনেক নেত্রীকে পাশ কাটিয়ে মুন্নীকে সহ: আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদকের পদ দিয়েছেন তারেক। গুঞ্জন রয়েছে, হোয়াটসঅ্যাপে তারেকের লালসা মেটাতে সক্ষম হওয়ায় মুন্নী সহজেই পদ বাগিয়ে নিয়েছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি