বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » বিএনপির সম্মান বাঁচাতে জাইমাকে বিয়ে দিতে চান খালেদা জিয়া



বিএনপির সম্মান বাঁচাতে জাইমাকে বিয়ে দিতে চান খালেদা জিয়া


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
20.09.2021

নিউজ ডেস্ক: ‘জাইমা রহমান যথেষ্ট লেখাপড়া করেছে। বিএনপির রাজনীতি করতে এতো বড় ডিগ্রি লাগে না। সময় হলে সেই বিএনপির হাল ধরবে। কিন্তু তার আগে জাইমাকে বিয়ে দেয়া জরুরি। পত্রপত্রিকা ও অনলাইনে তার উচ্ছৃঙ্খলতা এবং বেহিসাবি জীবন নিয়ে অনেক লেখা পড়েছি। পাকিস্তানি কোনো ছেলের সাথে প্রেম-ট্রেম করে বোধহয়। তাই কোনো কেলেঙ্কারি ঘটিয়ে জিয়া পরিবারের মুখে চুনকালি দেয়ার আগে ভালো ছেলে দেখে তার বিয়ে দিয়ে দাও।’ জানা গেছে, তারেককন্যা জাইমা রহমানের বিয়ে নিয়ে মা জোবায়দার সাথে এমন কথাই বলেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

বিএনপি ঘনিষ্ঠ একাধিক গোপন সূত্র বলছে, জাইমা রহমানকে বিভিন্ন সময়ে ফেসবুক, ইউটিউবে প্রচারিত নানা নেতিবাচক সংবাদ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আতঙ্কিত ছিলেন বেগম জিয়া। পাকিস্তানি যুবকের সাথে প্রেম-প্রণয়, টিকটকে নোংরা ভিডিও নির্মাণ, উচ্ছৃঙ্খল চলাফেরা, বিদেশিদের সাথে পার্টির আড়ালে বেহিসাবি জীবন যাপনে জাইমাকে নিয়ে ভয়ে রয়েছেন দাদি বেগম জিয়া। তাই জিয়া পরিবারের মুখে চুনকালি দেয়ার আগেই নাতনী জাইমা রহমানের বিয়ে দিতে চান তিনি। বেগম জিয়া চান না, তার নাতনীরা প্রবাসে অনৈতিক কোনো কাজ করে জিয়া পরিবার এবং বিএনপির সম্মান নষ্ট করুক। যার কারণে বিভিন্ন সময়ে তিনি জাইমাকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে তারেক-জোবায়দাকে আদেশও দিয়েছিলেন। কিন্তু তারা কথা কানে তুলেননি। তারেক-জোবায়দার প্রশ্রয়েই উচ্ছৃঙ্খল ও বেহায়া হয়ে উঠেছেন জাইমা। আর অনলাইনের মাধ্যমে জাইমার এসব কুকর্ম জেনেই মাথা খারাপ হওয়ার উপক্রম বেগম জিয়ার। তাই ২০ সেপ্টেম্বর ফোন করে জোবায়দা রহমানকে জাইমার বিয়ের বিষয়ে তাগাদা দেন খালেদা জিয়া।

এসময় জোবায়দাকে উদ্দেশ্য করে খালেদা বলেন, ‘বিএনপির রাজনীতি করতে যতটুকু প্রয়োজন তার চেয়ে ঢের বেশি হয়েছে জাইমার লেখাপড়া। বিএনপির আগামী দিনের নেত্রীই তো জাইমা কিন্তু এই মুহূর্তে জরুরী তার বিয়ে। জাইমা রহমানের বেহিসাবি জীবন-যাপন নিয়ে পত্রপত্রিকায় অনেক লেখা পড়েছি। পাকিস্তানি কোনো ছেলের সাথে প্রেম-ট্রেম করে বোধহয়। তাই জিয়া পরিবারের মুখে চুনকালি লাগার আগেই ভালো ছেলে দেখে তার বিয়ে দিয়ে দাও। জাইমার বয়সে আমি সন্তানের মা হয়েছিলাম। বেশি বয়স করে মেয়ের বিয়ে দেয়ার চিন্তা করলে কেলেঙ্কারি ঘটতে পারে। এই রিস্ক নেয়া ঠিক হবে না। তাই সময় থাকতে লন্ডনে বিএনপি করে এমন প্রভাবশালী কোনো নেতা সন্তান বা আত্মীয়র সাথে বিয়ে দাও জাইমার। নইলে যেকোনো দিন একটা অঘটন ঘটিয়ে বসবে এই মেয়ে।’

এদিকে বেগম জিয়ার এমন প্রস্তাবের তাৎক্ষণিক কোনো উত্তর দেননি জোবায়দা রহমান। তিনি বিষয়টি স্বামী তারেক রহমানের সাথে পরামর্শ করে উত্তর জানানোর কথা বলেন বেগম জিয়াকে। অবশ্য কিছু সূত্র বলছে, তবে অল্প বয়সে কন্যা জাইমার বিয়ে দিতে চান না তারেক-জোবায়দা। তারা বিএনপিকে শিক্ষিত নেতৃত্ব দিতে চান। যার কারণে জাইমাকে আরো পড়াশোনা করাতে চান। তবে জাইমার উচ্ছৃঙ্খল জীবন নিয়ে প্রতিনিয়ত দুশ্চিন্তায় থাকেন তারেক-জোবায়দা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি