শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১



সম্মান রক্ষার্থে রাজনীতি ছাড়ছেন ড. কামাল


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
20.09.2021

নিউজ ডেস্ক: গণফোরাম সভাপতি ও কাগজ-কলমে কেবল দৃশ্যমান সরকারবিরোধী জোট ঐক্যফ্রন্টের মূল সমন্বয় ড. কামাল হোসেন রাজনীতি থেকে অবসরে যাওয়ার চিন্তাভাবনা করছেন বলে জানা গেছে। বয়সের কারণে তিনি রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার কথা বললেও গোপন সূত্র বলছে, হতাশা ও ব্যর্থতার কারণে রাজনীতি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন ড. কামাল।

একাধিক গোপন সূত্র বলছে, অনেক আশা নিয়ে গণফোরাম গঠন করেছিলেন ড. কামাল। কিন্তু দীর্ঘ সময়েও রাজনীতিতে অবস্থান গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয় তার দল। পরবর্তীতে বিএনপির ঘাড়ে সাওয়ার হয়ে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যাওয়ার লোভে ২০১৮ সালে ঐক্যফ্রন্ট গঠন করেন ড. কামাল। কিন্তু সেই আশাতেও গুড়েবালি। চাওয়া অনুযায়ী জনগণের মাঝে সাড়া ফেলতে পারেনি ঐক্যফ্রন্ট। তাই রাজনীতিতে নিজেকে ডিফিটেড সোলজার তথা পরাজিত সৈনিক ভেবে সরে দাঁড়াতে চান বর্ষীয়ান এই বিতর্কিত নেতা। সর্বশেষ ঐক্যফ্রন্টের ফাটল, অনুগতদের বিদ্রোহ ও বিএনপির তরফ থেকে দুয়ো শোনার কারণে মনঃক্ষুণ্ণ হয়েই রাজনীতি ত্যাগের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছেন তিনি। কারণ ড. কামাল মনে করছেন, বাংলাদেশের রাজনীতিতে তার অবদান রাখার আর সুযোগ নেই। তার প্রতিটি ফর্মুলাই মার খেয়েছে।

অবশ্য গণফোরাম ঘনিষ্ঠ একটি গোপন সূত্র বলছে, দেশের প্রচলিত রাজনীতিতে খেই হারিয়ে ফেলেছেন ড. কামাল। তার অদক্ষ ও বিতর্কিত নেতৃত্বের কারণে গণফোরামে ফাটল ধরে এবং বিভক্ত হয়ে পড়ে। আর যাদের আর্থিক সহায়তা ও সমর্থনে তিনি রাজনীতি করতেন, তারাও ড. কামালের ক্রমাগত ব্যর্থতায় হতাশ। তাই মূলত তাদের পরামর্শেই সম্মান রক্ষার্থে রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ড. কামাল।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি