শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 4 » বিএনপির টাকায় ক্যাম্পাসে অস্থিরতা সৃষ্টির মিশনে মান্না



বিএনপির টাকায় ক্যাম্পাসে অস্থিরতা সৃষ্টির মিশনে মান্না


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
26.09.2021

ক্যাম্পাসে লাশ ফেলার পরিকল্পনা করছেন দুই জন সাবেক ছাত্রনেতা, অবিশ্বাস্য মনে হলেও ঘটনাটি সত্য। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর ক্যাম্পাসগুলোকে অস্থির করে তোলার নীলনকশা এঁটেছেন সাবেক ডাকসু ভিপি মান্না ও নুর। সুশীল সমাজের ছদ্মবেশে বিএনপি-জামায়াতের হয়ে ক্যাম্পাস গোছানোর দায়িত্ব নিয়েছেন মাহামুদুর রহমান মান্না। এবার তিনি সঙ্গে নিয়েছেন উচ্চাভিলাসি ও ক্ষমতালিপ্সু তরুণ নুরুল হক নুরকে।

মনে করে দেখুন, সেই জ্বালাও-পোড়াও দিনগুলির কথা। বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন খোকাকে কয়েকজন ছাত্রের লাশ ফেলার পরিকল্পনা দিয়েছিলেন এই মান্না। ভাইবারে আলাপচারিতার সেই অডিও রেকর্ড ফাঁস হয়ে যায়। পরে পুলিশ তাকে আটক করে। সেই ঘটনার দায় স্বীকার করে মান্না তখন জিজ্ঞাসাবাদে বলেছিলেন, রাজনীতির গতিমুখ বদলাতে গেলে কখনো কখনো লাশের প্রয়োজন হয়।

ঠিক একইভাবে আবারো ক্যাম্পাসে লাশ ফেলার মিশনে নেমেছে এই চক্রটি। তবে এবার তার সঙ্গে আছে সাবেক ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর। এই এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য সম্প্রতি অনলাইন ও অফলাইনে কয়েকটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছেলে হুম্মাম কাদের ইতোমধ্যে দুজন ব্যবসায়ীর মাধ্যমে দেড় কোটি টাকা দিয়েছেন মান্নাকে। এই টাকার একটা বড় অংশ নুরকে দিতে বলা হয়েছে। তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ এই হুম্মাম চায়, যে কোনো মূল্যে ক্যাম্পাসে অস্থিরতা সৃষ্টি করুক মান্না। এরপর জামায়াতের বিশেষ টিমের মাধ্যমে দেশজুড়ে নাশকতা শুরু করবে তারা।

সোমবার সর্বশেষ বৈঠকে নুরকে বিভিন্ন ক্যাম্পাসে ছাত্র অধিকার পরিষদের কর্মীদের সক্রিয় করার নির্দেশনা দিয়েছেন মান্না। এরপর গত দুদিন থেকেই দেশজুড়ে তৎপরতা বাড়াচ্ছে নুরের দলের কর্মীরা। এরই অংশ হিসেবে কুড়িগ্রামে গিয়েছেন সংগঠনটির নতুন সভাপতি বিন ইয়ামিন। এসময় ছাত্রদল ও শিবিরের সঙ্গে সম্পৃক্তদের নিয়ে, জুতো পরে শহীদ মিনারের বেদীতে উঠে শক্তি প্রদর্শন ও শোডাউনের চেষ্টা করে ছাত্র অধিকারের কর্মীরা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি