শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত সাঈদীকে ইস্যু করে আবারও বিশৃঙ্খলার চেষ্টা



মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত সাঈদীকে ইস্যু করে আবারও বিশৃঙ্খলার চেষ্টা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
09.10.2021

নিউজ ডেস্ক: নিরীহ মানুষকে খুন, বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে মেয়েদের ধর্ষণ, সংখ্যালঘুদের জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত এবং তাদের সম্পত্তি দখলের মতো ন্যক্কারজনক কাজ করেছিল দেলোয়ার হোসেন সাঈদী ওরফে দেইল্লা রাজাকার। মহান মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য আদালত কর্তৃক শাস্তির রায় পেয়ে কারাগারে বন্দী আছে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী।

দেশ স্বাধীনের পর ধর্ম ব্যবসায় মনোনিবেশ করার মাধ্যমে দেশব্যাপী কিছু অনুসারী তৈরি করে সাঈদী। যারা ক্রমাগত দেশকে অস্থিতিশীল করতে সক্রিয় ভূমিকা এখনও পালন করছে। ওরা এর আগেও ২০১৩ সালে দেশব্যাপী ভয়াবহ তাণ্ডব চালিয়েছিল। বিএনপি-জামায়াতের ওই তাণ্ডবে সারা দেশে ৫০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়।

এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় সাঈদীকে নিয়ে তাদের একের পর এক গুজব রটনা। এর মধ্যে ‘চাঁদে সাঈদীকে দেখা যাচ্ছে’ এমন গুজব ছড়িয়ে ২০১৩ সালের ৩ মার্চ বগুড়ার বিভিন্ন এলাকায় তাণ্ডব চালায় জামায়াত-শিবির। মানুষকে বিভ্রান্ত করে আবারও খেপিয়ে তুলতে নতুন নতুন গান, স্ট্যাটাস কিংবা ছবি তৈরি করে প্রকাশ করছে ওই কুচক্রী মহল। এরই ধারাবাহিকতায় দু’দিন আগে ‘সাঈদীর মুক্তি চাই’ নামের একটি গানের প্রমো প্রকাশ করেছে ‘মাহবুব রিয়াজ অফিসিয়াল’ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল। যারা এ কাজটি করেছে তাদের মূল লক্ষ্য জনগণকে খেপিয়ে দেশে অশান্তির পরিবেশ তৈরি করা। কিন্তু তাদের এ ধরনের কাজ আদালত অবমাননার শামিল।

কেননা সাঈদীর সকল অপকর্মের প্রমাণ আদালতের হাতে যাওয়ায় তার শাস্তি হয়েছে। আদালত কর্তৃক দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির মুক্তি কামনা করা মানেই সুস্পষ্ট আদালত অবমাননা। দেশের আইনে যা বড় অপরাধ। সুতরাং বিপথগামী তরুণদের ছড়ানো অপপ্রচার থেকে সাবধান থাকুন। দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সহায়তা করুন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি