সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » জামায়াতকে তুলোধুনো করলো বিএনপি, সুযোগ খুঁজছে রেজা-নুর



জামায়াতকে তুলোধুনো করলো বিএনপি, সুযোগ খুঁজছে রেজা-নুর


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
31.10.2021

নিউজ ডেস্ক: এখন প্রকাশ্যে বিএনপি-জামায়াত দ্বন্দ্ব। বিএনপির ‘ফাইটার ফোর্স’ হিসেবে ব্যবহৃত হওয়া জামায়াত এখন বুঝে গেছে তাদের পক্ষে বিএনপি প্রকাশ্যে কথা বলবে না। তাই বিএনপিকে ছেড়ে কথা বলছে না জামায়াত নেতারা। খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে বের করছেন বিএনপির দোষক্রটি। বিএনপি নেতারাও তুলোধুনো করছেন প্রকাশ্যেই। আর এই সুযোগটিই কাজে লাগাতে চাইছে রেজা কিবরিয়া আর নুর। জামায়াতকে শরিক বানাতে চাইছেন গণঅধিকার পরিষদের।

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সাইফুর রহমান জামায়াতে ইসলামীর পক্ষে কথা বলায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।

এই আইনজীবী ২০০৬ সালের ২৮ অক্টোবর পুরানা পল্টনে জামায়াতের সমাবেশে হামলা ও দলটির অনুসারী কয়েকজনের মৃত্যুর জন্য বিএনপিকে দায়ী করে বক্তব্য দেন। তারপরই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে বিএনপির সিনিয়র এই দুই নেতা। পরে সেই আলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সাবেক শিবির নেতা ও বর্তমানে কল্যাণ পার্টির যুগ্ম মহাসচিব (সমন্বয়কারী) আবদুল্লাহ আল হাসান সাকিবের উপর মারমুখি হয়ে তর্কে জড়িয়ে পড়েন খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও শামসুজ্জামান দুদু। এক প্রকার তুলোধুনো করেন জামায়াত-শিবিরের নেতাদের।

‘এই জামায়াত বাংলাদেশকে আজ এই জায়গায় নিয়ে এসেছে’ উল্লেখ করে দলটির ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘এ সবই জামায়াতের ফাইজলামি। তাদের জন্যই আজ বিএনপির এই করুন দশা। জোটের রাজনীতি থেকেও তাদের বের করে দেওয়া উচিত।’

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি এবং জামায়াত নেতাদের ঝগড়া হবার পরেই ৩০ অক্টোবরের এই ঘটনার পর সাবেক শিবির নেতা আবদুল্লাহ আল হাসান সাকিবের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলেছেন গণঅধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া। সে সময় তিনি জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে জোট গঠনের প্রস্তাব দিয়েছেন।

জানা গেছে, আবদুল্লাহ আল হাসান আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এবং এ বিষয়ে জামায়াতের ঊর্ধ্বতন শীর্ষ নেতাদের সাথে কথা বলে খুব শিগগিরই বৈঠকের আয়োজন করবেন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, প্রেসক্লাবের ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব প্রকাশ পেল। মূলত বিএনপি জামায়াতকে সাথে নিয়ে প্রকাশ্যে রাজনীতি করতে চায় না। ব্যবহার করতে চায় শুধু ফাইটার বাহিনী হিসেবে। বিএনপির খেলার পুতুল হিসেবে থাকতে চায় না জামায়াতও। তারা মনে করে জামায়াতের সহযোগিতায় এখনও টিকে আছে বিএনপি। না হলে আরো আগেই বিএনপির নাম মানুষ ভুলে যেত। তবে এখন আর না। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, জামায়াত বিএনপিকে বাদ দিয়ে নতুন পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে। তারা চাইছে বিএনপির উপর প্রতিশোধ নিতে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি