সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » other important » ভবিষ্যৎ অন্ধকার দেখেই পদত্যাগ করছেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা



ভবিষ্যৎ অন্ধকার দেখেই পদত্যাগ করছেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
03.11.2021

ধীরে ধীরে ঘনিয়ে আসছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিনক্ষণ। এরই মধ্যে দেশের রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচন নিয়ে নানা হিসাব-নিকাশ করতে শুরু করেছে।

তবে এক্ষেত্রে একেবারেই ব্যতিক্রম বিএনপি। নির্বাচনে নিয়ে দলটির কোনো কর্ম পরিকল্পনাই চোখে পড়ছে না। আর এ কারণে দীর্ঘদিন ধরে দলের সঙ্গে থাকা অসংখ্য নেতাকর্মী এখন মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন বিএনপি থেকে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, হতাশা, ক্ষোভ এবং রাজনৈতিক দেউলিয়াত্বের কারণে দিন দিন বিএনপির নেতাকর্মীদের রাজনীতি ছাড়ার প্রবণতা বাড়ছে। আর তৃণমূলে এ ধরনের বিষয় বেশি হচ্ছে।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, মাঠে বিএনপির কোনো ধরনের রাজনৈতিক কার্যক্রম না থাকায়, এমনকি শীর্ষ নেতাদের সমন্বয়হীনতায় তৃণমূল কর্মীরা চরম হতাশ হয়ে পড়েছে। আর এ হতাশা থেকে প্রতিদিনই দেশের কোন না কোন জেলা থেকে বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীরা দলকে বিদায় জানাচ্ছেন। তারা কোনো না কোনো প্ল্যাটফর্মে যোগ দিচ্ছেন। আবার অনেক কর্মী ব্যবসা-বাণিজ্যের দিকে পুরাদস্তুর মনোনিবেশ করছেন।

জানা গেছে, তৃণমূল নেতা-কর্মীরাই সবচেয়ে বেশি হতাশার মধ্যে পড়েছেন। কারণ জেলার নেতারা বর্তমানে রাজনীতি থেকে যোজন-যোজন দূরত্বে আছেন। রাজনৈতিক কোনো কর্মসূচি না থাকায় তারা অনেকটা গা ঢাকা দিয়ে সময় পার করছেন। এছাড়া জেলার নেতারা কর্মীদের কোনো খোঁজ-খবর না নেয়ায় হতাশা বেড়েই চলেছে।

সম্প্রতি নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় আহ্বায়ক কমিটি বাতিলের জন্য দলের প্রায় ৫০ জন সদস্য কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে স্মারকলিপি পেশ করেছেন। এরই মধ্যে তারা আলটিমেটাম দিয়েছেন যে, এ কমিটি অবিলম্বে বাতিল না করা হলে তারা গণপদত্যাগ করবেন।

জানা গেছে, নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার মতো সারাদেশে হাজার হাজার পরীক্ষিত নেতা বিএনপির রাজনীতিকে গুডবাই জানানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

জানতে চাইলে দলের সিনিয়র ও দায়িত্বশীল এক নেতা জানান, রাজনীতি একটি কর্ম। আর সে কর্ম যদি কোনো না কোনোভাবে বন্ধ থাকে তাহলে কর্মীরা হতাশ হবেই। হতাশা থেকে এমনটি হচ্ছে বলে অভিমত দেন তিনি।

তিনি বলেন, যারা দল ছাড়ছেন তাদের মধ্যে আদর্শের ঘাটতি রয়েছে। আদর্শবান নেতাকর্মীরা দলের সুদিনের পাশাপাশি দুর্দিনেও পাশে থাকে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি