রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১



কারা হট্টগোল করলো ফখরুলের সভায়


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
11.11.2021

নিউজ ডেস্ক : সম্প্রতি রাজধানীতে একটি স্মরণসভায় বক্তৃতার সময় বারবার নিষেধ করার পরও দলীয় নেতাকর্মীদের হট্টগোলে ক্ষুব্ধ হয়ে ডায়াস থেকে চলে যান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। পরে সবাই চুপ করলে তিনি ফিরে এসে বক্তব্য শেষ করেন। মির্জা ফখরুল ফিরে আসার পর ফের কর্মীরা চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে।

বিএনপির অনেক নেতাই বিষয়টিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে রুহুল কবির রিজভীর নগ্ন ষড়যন্ত্র হিসেবে অবিহিত করেছেন। যদিও রিজভীপন্থী নেতাদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বললে তারা বিষয়টিকে সরাসরি অস্বীকার করে বলেন, এসব হচ্ছে মির্জা ফখরুলপন্থী নেতাদের ষড়যন্ত্র। তারা নিজেরা হট্টগোল করে, রিজভী ভাইয়ের ওপর দায় চাপিয়ে দিচ্ছেন। মির্জা ফখরুল খুব ভালোভাবেই জানেন, মহাসচিব পদে যোগ্য দাবিদার রুহুল কবির রিজভী। আর এ কারণেই তিনি পথের কাটা সরিয়ে দিতে রুহুল কবির রিজভীকে বদনাম করার চেষ্টা করছেন।

এদিকে মির্জা ফখরুলের সভায় কে হট্টগোল করলো সে বিষয় গবেষণা না করে ফখরুল ও রিজভীর দ্বন্দ্বে অবসান চেয়ে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বলেন, দুই দিন পরপর এই দুই নেতার মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রতীয়মান হয়। বিষয়টি দুঃখজনক। তাদের মনে রাখতে হবে, দলে এখন সংকটময় সময় বিরাজমান। এ মুহূর্তের নিজেদের বিবাদ মিটিয়ে নিজেদের শক্ত অবস্থান গড়ে তোলা বাঞ্ছনীয়। কিন্তু তা না করে, উল্টো বিএনপি অন্তকোন্দলে লিপ্ত। বিষয়টি বেমানান।

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে দলটির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, সংকটকালীন সময়ে এই ধরণের বিভেদ কাম্য নয়। রিজভী আহমেদের মধ্যে এক ধরণের সুপিরিয়রটি কমপ্লেক্স কাজ করে। কক্ষে বদ্ধ থাকতে থাকতে তার বুদ্ধি-বিবেচনা বোধও বদ্ধ হয়ে গিয়েছে। জাতীয় ইস্যুতে মির্জা ফখরুলের কথা বলার দায়িত্ব থাকলেও রিজভী বরাবরই অতি-উৎসাহী হয়ে প্রেস ব্রিফিং করে নিয়মের ব্যত্যয় ঘটান এবং বিভিন্ন প্রকারের ষড়যন্ত্র করেন।

তিনি আরো বলেন, ফখরুল-রিজভী দ্বন্দ্বে দলের বিভেদ স্পষ্ট হওয়ায় অনেক সিনিয়র নেতাই সম্মান বাঁচাতে দলে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন। দলকে পুনর্গঠন করার আগে দলের অভ্যন্তরীণ সমস্যাগুলোর সমাধান করতে হবে। দলকে শক্তিশালী করতে হলে বিভেদ ও বিভক্তি দূর করতে হবে। বিশেষ করে রিজভীর নিয়ম ভাঙার বিষয়ে দলকে কঠোর হতে হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি