সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১



জোবায়দার চেয়েও কদর বেড়েছে শর্মিলার


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
12.11.2021

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে পুত্রবধূ শর্মিলা রহমান সিঁথির কাঁধে ভর করেই গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজায়’ ফিরেছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

আর এ খবর শুনেই দুশ্চিন্তায় ঘুম হারাম হওয়ার মতো অবস্থা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও খালেদা জিয়ার জ্যেষ্ঠপুত্র তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবায়দা রহমানের। কারণ গুঞ্জন উঠেছে, খুব শিগগিরই জিয়া পরিবারের সমস্ত সম্পত্তির পাওয়ার অব অ্যাটর্নি দেওয়া হবে শর্মিলাকে।

জিয়া পরিবারের এক বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, বেশ কিছুদিন ধরেই খালেদা জিয়া চাইছেন তার সম্পত্তির দায়ভার থেকে মুক্ত হতে। এছাড়া তিনি আশা করেছিলেন, শেষ সময় হয়তো তারেক রহমানের স্ত্রী-সন্তানরা তার পাশে থাকবেন। কিন্তু পাশে দাঁড়ালেন ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান। তাই বড় ছেলে তারেক রহমান ও তার স্ত্রীর ওপর বিরক্ত খালেদা জিয়া।

এদিকে অসুস্থ শাশুড়ির সেবা করার জন্য লন্ডন থেকে দেশে আসায় জিয়া পরিবারের কাছে কদর বেড়েছে শর্মিলার। বিএনপি নেতারাও বাহবা দিচ্ছেন তাকে। তবে দলের অনেক নেতাই বলছেন, তারেক রহমানের সঙ্গে সম্পত্তির বিরোধ এবং জিয়া পরিবারের সম্পত্তির ভাগ বসাতেই দেশে এসেছেন শর্মিলা।

এ বিষয়ে বিএনপির একজন সিনিয়র নেতা পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বলেন, শর্মিলার উদ্দেশ্য যাই হোক না কেন, তিনি অসুস্থ ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এবং তার প্রতি ম্যাডামেরও সফট কর্নার রয়েছে। ম্যাডামের সম্পত্তি নিয়ে বিভিন্ন কানাঘুষা শোনা গেলেও দিন শেষে আসলে জিয়া পরিবারের সম্পত্তির মালিক শর্মিলা-তারেকরাই। এখন যদি সম্পত্তির লোভে তারা একে অপরকে ঠকানোর জন্য উঠেপড়ে লাগেন, তাহলে সেটা তাদের সমস্যা।

বিএনপির ঐ নেতা আরো বলেন, শর্মিলা দেশে আসার পর থেকেই তারেক রহমান দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। সম্পত্তি নিয়ে শর্মিলা এবং তারেকের দ্বন্দ্ব বহু পুরোনো হলেও সম্প্রতি বিষয়টি আরো তীব্র হয়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি