রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » সুযোগ বুঝে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত সরকারি কর্মকর্তারা



সুযোগ বুঝে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত সরকারি কর্মকর্তারা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
15.11.2021

নিউজ ডেস্ক: গতবছর সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার নিয়ে নির্দেশনা জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। যে নির্দেশনায় সরকারি কর্মচারীদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয় এমন কোনো পোস্ট দেয়া থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। এমনকি এ ধরনের পোস্টে কমেন্ট, লাইক ও শেয়ার করলেও সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার কথা থাকলেও সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করে বাংলাদেশ গণপ্রজাতন্ত্রী সরকারের পিডিআই অফিসার মোহাম্মদ আবু তৈয়ব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একের পর এক দেশ বিরোধী পোস্ট করে যাচ্ছেন।

গত ১৪ই নভেম্বর তিনি দুর্নীতিগ্রস্থ বিএনপি নেতা বেগম খালেদা জিয়ার বর্তমান অবস্থার জন্য আবেগ আপ্লুত হয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। যেখানে তিনি সরাসরি বিএনপির সমর্থকদের মতো করে তার স্ট্যাটাসটি লিখেন। যা নিয়ে ইতিমধ্যে সমালোচনা করছেন রাজনৈতিক বোদ্ধারা।

রাজনৈতিক বোদ্ধারা বলেন, পিডিআই অফিসার আবু তৈয়ব নিঃসন্দেহে একটি নীতিবিরোধী কাজ করেছেন। একজন সরকারি কর্মকর্তা কখনোই রাজনৈতিক মতাদর্শের হতে পারে না। এছাড়া এটি দেশের আইন বিরোধী কার্যকলাপ। তার এমন স্ট্যাটাস প্রমাণ করে, সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে ভিন্ন মতাদর্শের মানুষ রয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় সে সব দেশ বিরোধী শক্তি প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে, এর পরিণতি ভয়াবহ হতে পারে।

উল্লেখ্য, সরকারি প্রতিষ্ঠানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার নির্দেশিকা, ২০১৯ (পরিমার্জিত সংস্করণ)’ এ কর্মচারীদের বিধি নিষেধ উল্লেখ করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা পরিপত্রে বলা হয়- ‘জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা অন্য কোন সার্ভিস বা পেশাকে হেয় প্রতিপন্ন করে কিংবা অন্যকোনো রাজনৈতিক মতাদর্শের ব্যক্তিদের নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে’ এমন কোন পোস্ট দেয়া থেকে বিরত থাকার জন্য সরকারি কর্মচারীদের অনুরোধ করা হচ্ছে।

এতে‍ ‘অন্য কোন রাষ্ট্র বা রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য’ সম্বলিত কোনো পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও আপলোড, কমেন্ট, লাইক বা শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে সরকারি কর্মচারীদের বলা হয়েছে। এ পরিপত্রে সরকারের সকল মন্ত্রণালয়, বিভাগ, বিভিন্ন দপ্তর বা সংস্থার কর্মচারীদের সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু নির্দেশনা অনুসরণ করতে বলা হয়।

এতে বলা হয়,‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার বা নিজ একাউন্টের ক্ষতিকারক কন্টেন্টের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মচারী নিজে দায়ী হবেন’ – এবং তার বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। দুই বছর আগে এমন নির্দেশিকা জারির পর গত ১৪ই নভেম্বর নিজের ফেসবুক একাউন্ট থেকে পিডিআই কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবু তৈয়ব বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্বাস্থ্য ও তার পরিবারের সফলতা কামনা করে বিশাল পোস্ট করেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি