রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 4 » দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে তারেকের টার্গেট ১০০ কোটি টাকা



দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে তারেকের টার্গেট ১০০ কোটি টাকা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
17.11.2021

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আনুষঙ্গিক নানা খরচ মিলিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের কাছে ১০০ কোটি টাকার টার্গেট দিয়েছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

খালেদা জিয়ার বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা, নেতাকর্মীদের সার্বিক খরচ ও দলকে পুনর্গঠিত করতে আন্দোলন-কর্মসূচির খরচসহ অন্তত ১৫টি খাত দেখিয়ে ঐ পরিমাণ অর্থ চাওয়া হয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

যদিও তারেক রহমানের এমন অন্যায় আবদার মেটাতে অস্বীকৃতি ও অনাস্থা জানিয়েছেন দলের সিনিয়র নেতাকর্মীরা। এ লক্ষ্যে সম্প্রতি দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে স্কাইপে বৈঠকে বসেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

এ সময় বিএনপি নেতারা দল চালাতে অর্থনৈতিক সংকটের কথা জানান। তারেক রহমান তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ও জানতে চান আগামী নির্বাচন উপলক্ষে তারা ১০০ কোটি টাকা দল থেকে ম্যানেজ করতে পারবেন কিনা? জবাবে বিএনপি নেতারা বিভিন্ন খাতের কথা উল্লেখ করে অস্বীকৃতি জানান।

তারেক রহমানের সঙ্গে স্কাইপে বৈঠকে উপস্থিত বিএনপির অন্তত দুজন নেতা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির সিনিয়র ও দায়িত্বশীল একজন নেতা বলেন, খালেদা জিয়ার বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা খরচ দলগতভাবে বহন করতে হয়। এছাড়া তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে বারবার আনা-নেয়া ও চিকিৎসার পুরো খরচই বহন করতে হচ্ছে।

পাশাপাশি খালেদা জিয়ার মামলা পরিচালনার ব্যয় বকেয়া পড়েছে প্রায় ৪ কোটি টাকা। আইনি লড়াইয়ে আরো খরচ পড়বে ২ কোটি টাকা। খালেদা জিয়ার গুলশানের বাড়ি ভাড়া, বিদ্যুৎ ও গ্যাস বিল ইত্যাদি বকেয়া রয়েছে প্রায় দেড় কোটি টাকা।

এছাড়াও তার নিরাপত্তারক্ষী, মালীসহ ৩২ জন কর্মচারীর বকেয়া বেতনের পরিমাণ প্রায় ৫০ লাখ টাকা। দলের দুটি কার্যালয় এবং রুটিন কাজ পরিচালনার জন্য এককালীন ২ কোটি টাকা দরকার।

আন্দোলন এবং বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের জন্য বরাদ্দ হিসেবে ৫০ কোটি টাকা প্রয়োজন। বিএনপির সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারণায় প্রয়োজন ১০ কোটি টাকা। বিদেশি লবিং ও কূটনৈতিকদের আপ্যায়ন সংশ্লিষ্ট খাতে ২০ কোটি টাকা প্রয়োজন।

তিনি বলেন, এসব ব্যয় সত্ত্বেও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তারেক রহমানের চাওয়া ১০০ কোটি টাকা নেতাদের ওপর ‘মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা’ হয়েই পড়েছে। বিষয়টি নিয়ে তারা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি