সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » ‘অসম্ভবকে সম্ভব করতে’ অনন্ত জলিলের টিপস চায় বিএনপি নেতারা!



‘অসম্ভবকে সম্ভব করতে’ অনন্ত জলিলের টিপস চায় বিএনপি নেতারা!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
22.11.2021

নিউজ ডেস্ক: সর্বশেষ ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসেছিল বিএনপি। এরপর আর ক্ষমতায় আসতে পারেনি দলটি। টানা বিশ বছর ক্ষমতার বাইরে থেকে দলটি ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। পরপর তিনটি সংসদ নির্বাচনে হারের পর দলটির নেতাকর্মীরা হতাশ। এই সময়ে নির্বাচনের পাশাপাশি সরকার পতনের আন্দোলনেও বার বার ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। সরকার পতনের বিষয়টি বিএনপির কাছে অসম্ভব ব্যাপারে পরিণত হয়েছে। এমতাবস্থায় ‘অসম্ভবকে সম্ভব করায়’ সিদ্ধহস্ত বাংলাদেশের আলোচিত চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের কাছে টিপস নিতে চান বিএনপি নেতারা।

জানা গেছে, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে বন্দিজীবন কাটাচ্ছেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি, দল চালাচ্ছেন লন্ডন থেকে। এদিকে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় রাজনীতিতে তার ফিরে আসার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। মূলত তারেক রহমানই বিএনপির প্রধান নেতা। কিন্তু তারেকের বিষয়ে দলে মতভেদ রয়েছে। বিএনপির সিনিয়র নেতারা খালেদার রাজনীতি করে এসেছেন, ফলে তারেকের মত নবীনের নির্দেশ মানতে নারাজ তারা। আবার তারেকের অনুসারীরা সিনিয়র নেতাদের পাশ কাটিয়ে বিএনপিতে প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টায় নিয়োজিত। এই অবস্থায় তারেকের নেতৃত্বে বিএনপি যতবারই আন্দোলনে গেছে ততবারই ব্যর্থ হয়েছে। নানাভাবে চেষ্টা করেও সফল না হওয়ায় এবার বাংলা সিনেমার আলোচিত নায়ক অনন্ত জলিলের কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিএনপির নেতারা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, একজন ব্যক্তি কিংবা দল যেকোনো কিছু থেকেই অনুপ্রেরণা নিতে পারেন। কেউ ফলভারে নত গাছ থেকে অনুপ্রেরণা নেন, কেউ নেন বিখ্যাত ব্যক্তিদের কাছ থেকে। আমরা যেহেতু সরকার পতনে অনেক আন্দোলন করে ব্যর্থ হয়েছি, সেক্ষেত্রে যার কাছ থেকে আমরা সরকার পতনের টিপস পাব তার কাছে তো যাবই। অনেকে বাংলা সিনেমার নায়ক বলে অনন্ত জলিলের কথা শুনে হাসতে পারেন। কিন্তু উনি ‘অসম্ভবকে সম্ভব করা’ নায়ক। তার কাছ থেকে পাওয়া টিপসে যদি আমরা সরকার পতন করতে পারি তাহলে কেন নেব না?

তবে রিজভীর এই বক্তব্যের সাথে দ্বিমত পোষণ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, রিজভী সাহেব তো দলের কথা শোনেন না। একা একা আলাদা সংবাদ সম্মেলন করেন। আমাদের নেতা তারেক রহমান নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে আন্দোলন করতে বলেছেন। কিন্তু উনি এসব উল্টাপাল্টা আইডিয়া নিয়ে আসেন। এমনেই তাঁকে সবাই বনের রাজা টারজান নামে ডাকে। এখন অনন্ত জলিলের পরামর্শ নিলে তো মানুষ আরও হাসাহাসি করবে। তার এসব কাজকর্ম বন্ধ করা উচিত।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপির অবস্থা হয়েছে মাঝ দরিয়ায় ডুবে যাওয়া জাহাজের মত। ফলে যাই সামনে পাচ্ছে তাই আঁকড়ে ধরার চেষ্টা করছে দলটির নেতারা। পরামর্শের জন্য অনন্ত জলিলের মত চিত্রনায়কের শরণাপন্ন হওয়ার বিষয়টি থেকে এটি স্পষ্ট।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি