সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » সরকার পতনের হুমকি দিয়ে বাসায় নাক ডেকে ঘুমাচ্ছেন ফখরুল!



সরকার পতনের হুমকি দিয়ে বাসায় নাক ডেকে ঘুমাচ্ছেন ফখরুল!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
24.11.2021

খালেদা জিয়াকে দ্রুত মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি না দিলে সরকার পতনের এক দফা আন্দোলন শুরুর হুমকি দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কিন্তু হুমকি দেওয়ার পর রাজপথে না থেকে তিনি বাসায় নাক ডেকে ঘুমাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার রাজধানীর মিরপুরে এক বিক্ষোভ মিছিল থেকে এই অভিযোগ করেন রিজভী।

জানা গেছে, দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে সোমবার ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সরকারকে খুব পরিষ্কার ভাষায় আমরা এই গণঅনশন থেকে বলে দিতে চাই যে, খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে মুক্তি দিয়ে তাকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য পাঠানোর ব্যবস্থা করুন। তা না হলে এবার যে আন্দোলন শুরু হলো গণঅনশনের মধ্য দিয়ে সেই আন্দোলন আপনাকে গদিচ্যুত করবে।’ তার এই বক্তব্যের পরদিন মঙ্গলবার সকালে মিরপুর ১০ নম্বর আল-হেলাল হাসপাতালের সামনে থেকে মিছিল বের করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। মিছিলটি শেওড়াপাড়া পর্যন্ত গিয়ে শেষ হয়। মিছিল শেষে বক্তব্য দেন রিজভী।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, সমাবেশে বক্তব্য দেওয়ার সময় অনেকে খুব বাড়িয়ে কথা বলতে পছন্দ করেন। কিন্তু কাজের বেলায় লবডঙ্কা। আমাদের সিনিয়র অনেক নেতা বড় সমাবেশ দেখলে মাইক ছাড়তে চান না। সরকার ম্যাডামকে এতদিন ধরে জেলে আটকে রেখেছে কিন্তু আমাদের মহাসচিব এসি রুমে বসে সংবাদ সম্মেলনের বাইরে কিছু করেননি। এখন কর্মীরা রাজপথে নেমে আসায় তিনি হুমকি দিচ্ছেন সরকার পতনের। কিন্তু হুমকি দিয়ে পরের দিনই মাঠে নাই, বালিশে নাক ডেকে ঘুমাচ্ছেন। রিজভী আক্ষেপ করে বলেন, আমি এতদিন ধরে অসুস্থ শরীর নিয়েও মাঠে আছি, কিন্তু সুবিধাবাদী নেতারা মাঠে না নেমেও বড় বড় পদ দখল করে রেখেছেন। শীর্ষ নেতৃত্ব এসব বিষয়ে যদি সচেতন না হন তাহলে আমাদের আন্দোলন সফল হবে না।

রিজভীর অভিযোগের বিষয়ে জানতে মির্জা ফখরুলকে ফোন দিলে তিনি ধরেননি। তবে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেন, দলের খারাপ সময়ে এসে অপরের বিরুদ্ধে না বলে ঐক্যবদ্ধ থাকা জরুরি। সিনিয়র নেতারা এভাবে কথা বললে কর্মীদের মনোবল কমে যাবে। আমি আশা করি, ওনারা বক্তব্য দেওয়ার সময় একটু সাবধানী হবেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি