সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » বিএনপির আন্দোলন সংক্রান্ত কমিটিতে স্বজনপ্রীতির শঙ্কা



বিএনপির আন্দোলন সংক্রান্ত কমিটিতে স্বজনপ্রীতির শঙ্কা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
26.11.2021

নিউজ ডেস্ক: তীব্র সরকারবিরোধী আন্দোলন গড়ে তুলে বিএনপিকে রাজপথে সক্রিয় করতে এবার রোডম্যাপ তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। বিএনপিকে চাঙ্গা করে দাবি-দাওয়া আদায় করতে দলের পুনর্গঠনে বিভিন্ন কমিটি-সাব কমিটি এবং ন্যাশনাল ম্যাস মুভমেন্টের স্টিয়ারিং কমিটি গঠন করার পরিকল্পনার বিষয়ে তারেক রহমানকেও জানানো হয়েছে। গ্রিন সিগন্যাল পেলেই শুরু হবে দেশব্যাপী কমিটি গঠনের কার্যক্রম।

যুক্তরাজ্য বিএনপির একজন দায়িত্বশীল নেতার বরাতে তথ্যের সত্যতা সম্পর্কে অবগত হওয়া গেছে। যদিও তারেক রহমানের নতুন এই পরিকল্পনায় ভীতির সঞ্চার হয়েছে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মনে। সরকারবিরোধী আন্দোলন গড়ে তুলতে যেসব কমিটি গঠন করার আভাস দেয়া হয়েছে তাতে নতুন করে সংশয় ও হতাশা সৃষ্টি হয়েছে নেতাদের মনে। কমিটির কথা বলে চাঁদাবাজি ও স্বজনপ্রীতির নামে নতুন করে দলটির কর্মীদের কপালে জুটবে বঞ্চনা বলে বিএনপির অভ্যন্তরে গুঞ্জন উঠেছে।

লন্ডন বিএনপি নেতা আবদুল মালিকের বরাতে জানা যায়, দলকে চাঙ্গা করতে এবং বেগম জিয়ার মুক্তি ও সরকারবিরোধী আন্দোলন গড়ে তুলতে শক্তিশালী কমিটি, সাব-কমিটি ও ন্যাশনাল ম্যাস মুভমেন্ট কমিটি গঠন করার পরিকল্পনার জন্য তারেক রহমানের কাছে চিঠি লিখেছেন ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকারের নেতৃত্বে একাধিক সিনিয়র নেতা। কমিটির নেতারা দেশব্যাপী জনসংযোগ চালিয়ে আন্দোলনের প্রেক্ষাপট রচনা করবেন। সেটির জন্য বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের মতামত গ্রহণ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, কমিটিতে জায়গা করে নিতে হলে দলের নেতাকর্মীদের কিছু পরীক্ষা দিতে হবে। সেজন্য অল্প-বিস্তর অনুদান দিতে হবে নেতাকর্মীদের। বৃহত্তর ফান্ড গঠন করে দীর্ঘমেয়াদী সরকারবিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। তবে এতে নেতাকর্মীদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই। দল ও নেত্রীকে বাঁচাতে পকেটের দিকে তাকালে চলবে না। সর্বাত্মক ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত থাকতে হবে নেতা-কর্মীদের।

যদিও বিএনপির নয়াপল্টন পার্টি অফিসের একটি দায়িত্বশীল সূত্র বলছে, কমিটি গঠনের নামে নতুন করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাঁয়তারা চলছে। বিএনপির নেতারা দাবি-দাওয়া আদায় করার সামর্থ্য রাখে। প্রয়োজন শুধু সঠিক নির্দেশনা ও পরিকল্পনার। কমিটি, সাব-কমিটি গঠনের নামে নতুন করে স্বজনপ্রীতি ও চাঁদাবাজির পাঁয়তারা নিয়ে দলে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। এগুলো দলের জন্য ভালো নয়। দলকে সংগঠিত করার নামে দলে বিভক্তি সৃষ্টির নতুন এই পাঁয়তারায় লাভবান হবেন গুটিকয়েক নেতা আর ক্ষতিগ্রস্ত হবে দল বলেও মনে করছেন দলের একাংশের নেতারা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি