সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২



খালেদার প্রতি আর কতো মানবিক হবে সরকার?


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
29.11.2021

নিউজ ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশ্ন উঠেছে- একজন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্রতি আর কত মানবিক হবে সরকার? সাজাপ্রাপ্ত একজন আসামির জন্য আইনের ঊর্ধ্বে গিয়ে মানবিকতা দেখিয়েছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিকতার কারণে খালেদা জিয়া সাজাপ্রাপ্ত কয়েদিদের চেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন।

জেলখানায় খালেদা জিয়ার সহযোগিতার জন্য ফাতেমাকে (খালেদার কাজের লোক) থাকার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আরাম-আয়েশে বাসায় থাকার জন্য জামিন দেওয়া হয়েছে। পছন্দের চিকিৎসক দ্বারা পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসা নেবার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। বিদেশ থেকে ডাক্তার আনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এও বলেছ, বিদেশ যাওয়ার জন্য আবার নতুন করে জেলে গিয়ে আবেদন করলে অথবা অপরাধ স্বীকার করে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইলে বিশেষভাবে বিবেচনা করবে সরকার। তবুও বিএনপি সরকারকে দোষারোপ করছে। বলছে, খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে যাবার সুযোগ দিচ্ছে না সরকার।

সংবিধানের নির্দেশনা অনুযায়ী পুরনো আবেদন নতুন করে বিবেচনার সুযোগ নেই। চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে হলে তাকে (খালেদা জিয়া) আবার জেলে গিয়ে নতুন আবেদন করতে হবে। মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। কোনও নিষ্পত্তিকৃত দরখাস্তকে পুনর্নিষ্পত্তি করার সুযোগ আইনে নেই।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সব কিছু জেনেশুনে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে অপরাজনীতি শুরু করছে। মূলত তাদের লক্ষ্য- খালেদাকে ব্যবহার করে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করা। যদি সত্যিই খালেদার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন হতো তাহলে তারা সরকারের প্রতি নমনীয় হতো। গণভবন ঘেরাওয়ের হুমকি দিত না। গদি থেকে সরকারকে টেনে নামানোর হুমকি দিত না।

সময়ের একটু পেছনে ফিরে তাকালেই দেখা যায়, এই খালেদা জিয়াই বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য নীলনকশা এঁকেছেন একাধিকবার। ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি আর তার পলাতক ছেলে তারেক রহমান মিলে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট শেখ হাসিনার জনসভায় গ্রেনেড হামলা চালায়। সরকারি পুলিশ দিয়ে খুনিদের পালিয়ে যেতে সহায়তা করে। হামলার আগের দিন খালেদা জিয়া বলেছিল, আওয়ামী লীগ আর কোনোদিন ক্ষমতায় আসতে পারবে না। তার স্বামী জিয়াউর রহমানও ‘৭৫ এ ১৫ আগস্ট ঘটিয়েছেন। সপরিবারে হত্যা করেছেন বঙ্গবন্ধুকে। খুনিদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে প্রত্যাবাসন করেছেন। এত কিছুর পরও খালেদা জিয়ার জন্য মানবিকতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি