সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২
  • প্রচ্ছদ » other important » বেগম জিয়ার জন্য বিদেশী চিকিৎসক না আনায় তারেকের প্রতি নেতাদের অনাস্থা



বেগম জিয়ার জন্য বিদেশী চিকিৎসক না আনায় তারেকের প্রতি নেতাদের অনাস্থা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
29.11.2021

নিউজ ডেস্ক : বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতি অনাস্থা বাড়ছে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্যদের। সেই অনাস্থা ও অবিশ্বাসের প্রেক্ষিতে বিএনপি নেতারা খালেদা জিয়াকে বিদেশি চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসা না করানোর ব্যর্থতাকে পরোক্ষভাবে দুর্বল ও অদূরদর্শী নেতৃত্ব তথা তারেক রহমানের গা-ছাড়া মনোভাবকে দায়ী করছেন।

কয়েক দিন আগে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপি চাইলে খালেদা জিয়ার জন্য বিদেশ থেকে চিকিৎসক আনতে পারে। সরকারের এমন বক্তব্যের পরও বিএনপি থেকে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এ কারণে তারেক রহমানের উপর নাখোশ বিএনপির একাধিক নেতা। যদিও পদ হারানো ও দলে ব্রাত্য হওয়ার ভয়ে কেউই সরাসরিভাবে তারেককে দোষারোপও করতে পারছেন না। মোট কথায় বিএনপির রাজনীতির আস্থা হারানো নেতাদের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। দেশের স্বনামধন্য একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষকের সঙ্গে একান্ত আলাপকালে বিএনপি নেতা ও তারেক রহমানের অদৃশ্য দূরত্ব এবং বিশ্বাসহীনতার বিষয়ে জানা গেছে।

এই বিষয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের একজন অধ্যাপক এবং রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন একবার বলেছিলেন, বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য আন্দোলন করতে ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। বর্তমানে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা করাতেও ব্যর্থ হচ্ছে বিএনপি। এর আগে বেগম জিয়ার উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার আক্ষেপ করে বলেছিলেন, বিএনপির রাজনীতি থেকে আর পাওয়ার কিছু নেই। এছাড়া নব্য বিএনপির নেতা হওয়া গোলাম মাওলা রনি একবার অভিযোগ করেছিলেন যে, বিএনপি নেতাদের রাজনীতি বাদ দিয়ে ধর্ম-কর্মে মনোযোগ দিতে হবে। দলের চরম সংকটে কেন এমন কথা বলছেন দলটির নেতারা?

তিনি আরো বলেন, আসলে লন্ডন নেতৃত্বের ব্যর্থতার কারণে আজকে বিএনপিতে হতাশার রাজনীতি প্রকাশ্য রূপ নিচ্ছে। সিনিয়র নেতারা সম্ভবত তারেককে দলের চেয়ারম্যান হিসেবে মেনে নিতে পারছেনা না, আবার সত্য প্রকাশ করারও সাহস পাচ্ছেন না। কারণ তারেকের বিরাগভাজন হলে কপালে জুটবে দুঃখ-যন্ত্রণা। মূলত পদ হারানোর ভয়েই মুখ বুঝে সব অনিয়ম সহ্য করছেন নেতারা। এসব বলে কেবল তৃণমূল নেতা-কর্মীদের হতাশাই বাড়াচ্ছেন সিনিয়ররা। দলের প্রয়োজনে বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক নেতাদের পদ ছাড়ারও উদাহরণ রয়েছে। তারেক পদ ছাড়ার সাহস দেখাতে পারবেন না। তাই নেতারা আজকে দুচারটা সত্য কথা বলার সাহস করলেও তাদের চুপ করিয়ে দেয়া হচ্ছে। সুতরাং বিএনপিকে নিয়ে যারা আশাবাদী হওয়ার চেষ্টা করছেন তারা আসলে বোকার স্বর্গে বাস করছেন। যে দলে গণতন্ত্র নেই, যে দলের নেতৃত্ব নড়বড়ে-সেই দল অন্তত রাজনীতিতে ভালো কিছু করতে পারে না।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি