সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে তারেকের রাজনৈতিক পরিকল্পনা ফাঁস



খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে তারেকের রাজনৈতিক পরিকল্পনা ফাঁস


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
04.12.2021

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে নতুন রাজনৈতিক পরিকল্পনা সাজিয়েছেন লন্ডনে পলাতক দলটির ভারপ্রাপ্ত ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। আর সেই পরিকল্পনা ফাঁস করেছেন বিএনপির খালেদা জিয়াপন্থী ও মধ্যম সারির নেতারা।

দলীয় সূত্র জানায়, বিএনপির রাজনীতিকে উজ্জীবিত করতে বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতাকে পুঁজি করেছেন তারেক রহমান। নিজের প্রতি দেশের মানুষের বিশ্বাস অনুধাবন করে মায়ের অসুস্থতাকে রাজনীতির হাতিয়ার বানিয়েছেন ছেলে তারেক। এতে ক্ষুব্ধ হয়েছেন খালেদা জিয়াপন্থী বিএনপি নেতারা। নোংরা রাজনীতি করায় ফের খালেদা জিয়াপন্থী ও তারেকপন্থী নেতাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে।

বিএনপির রাজনীতিতে খালেদাপন্থী হিসেবে পরিচিত দলটির একাধিক দায়িত্বশীল ও মধ্যম সারির নেতা জানান, খালেদা জিয়ার অসুস্থতাকে কেন্দ্র করে বিএনপির মৃতপ্রায় রাজনীতিকে চাঙ্গা করার শেষ চেষ্টা চালাচ্ছেন তারেক রহমান। কোনো যৌক্তিক আন্দোলন করতে ব্যর্থ বিএনপির ঘুরে দাঁড়ানোর সর্বশেষ চেষ্টা হচ্ছে খালেদা জিয়ার অসুস্থতা।

তারা আরো জানান, আবেগকে পুঁজি করে তারেক রহমান যা করতে চাইছেন তা খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে ইতিপূর্বেও ঘটেছিল। জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর মানুষের আবেগকে পুঁজি করে বিএনপির রাজনীতি জমিয়ে তোলেন খালেদা। কিন্তু দুইবার প্রধানমন্ত্রী হয়েও স্বামী-হত্যার বিচারের কোনো উদ্যোগ নেননি তিনি, যা ছিল লজ্জার। ঠিক একইভাবে দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয় বিএনপির রাজনীতিকে বাঁচানোর শেষ চেষ্টা হিসেবে নিজের মাকে ব্যবহার করা তারেক রহমানের মতো উচ্চাভিলাষী মানুষের পক্ষেই সম্ভব। অথচ যেহেতু খালেদা জিয়া একটি আইনি প্রক্রিয়ায় রয়েছেন সেহেতু তাকে আইনের মাধ্যমে মুক্ত করতে হবে।

বিএনপির একাধিক সূত্র বলছে, গত ২৪ নভেম্বর খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গুজব ছড়াতে নিষেধ করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কিন্তু একইদিন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে স্লো পয়জনিং করা হয়েছে। রিজভীকে তারেক রহমান এমন নির্দেশ দেন। এর পরদিন ২৫ নভেম্বর থেকে মির্জা ফখরুলও একই কথা বলতে শুরু করেন।

উল্লেখ্য, কারাগারে যাওয়ার শুরু থেকে খালেদা জিয়ার দেখাশোনা করেছেন তারই ব্যক্তিগত পরিচারিকা। চিকিৎসার সবকিছু নিয়মিত তত্ত্বাবধান করেছেন তারই ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপি নেতাদের পছন্দের শীর্ষ চিকিৎসকরা। নিজের বাড়িতে থেকেই করোনায় আক্রান্ত হন খালেদা জিয়া। তিনি কীভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তা আজও অজানা। পরে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তিও হন খালেদা জিয়া। এরপরই হঠাৎ খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির মৃতপ্রায় রাজনীতিকে চাঙ্গা করার চেষ্টা শুরু হয়।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি