সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » মস্তিষ্ক হ্যাকিংয়ের শিকার রিজভী: দায় স্বীকার করেছে তারেক



মস্তিষ্ক হ্যাকিংয়ের শিকার রিজভী: দায় স্বীকার করেছে তারেক


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
05.12.2021

নিউজ ডেস্ক: তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে বিভিন্ন ধরনের হ্যাকিংয়ের কথা প্রায়ই শোনা যায়। তবে এবার নিজের মস্তিষ্ক হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আর তার মস্তিষ্ক হ্যাক করার দায় স্বীকার করেছে বিএনপির পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

এনিয়ে তারেক রহমান বলেছেন, ‘এই হ্যাকিং নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করলে রিজভীকে আমি রোবট বানিয়ে দেব’।

রিজভীর অভিযোগ, কিছুদিন আগে শ্বশুরবাড়িতে ঘুমানো অবস্থায় তার শ্যালিকার সহযোগিতায় তারেকের চক্রটি তাকে অচেতন করে তার মাথায় একটি ছোট ইলেকট্রিক যন্ত্র (কম্পিউটার ডিভাইস) বা নিউরো চিপ স্থাপন করে দেয়। এরপর তার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ক্লোন করে প্রায় ২০ কোটিরও বেশি টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছে তারেক জিয়া।

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, আমার মস্তিষ্কের উপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছি। তারেক সাহেব আমাকে দিয়ে যা ইচ্ছে তাই করাচ্ছে। আমার নিজস্ব চিন্তা-চেতনার কোনো প্রয়োগই আমি করতে পারছি না। কিন্তু বুঝতে পারছি, আমার স্মৃতিশক্তি এখনও হারিয়ে যায়নি।

তিনি আরো জানান, তারেক জিয়া তার ব্যাংক হিসাব ক্লোন করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে মস্তিষ্ক থেকে সব স্মৃতি মুছে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয়েছে তাকে।

এদিকে রিজভীর মস্তিষ্কে চিপ স্থাপনের ঘটনার পরদিন থেকে সে পরিচিত কণ্ঠের গায়েবি আওয়াজ শুনতে পায়। সে কণ্ঠ জিয়াউর রহমানের। সেখানে তাকে গালাগাল করা হয়। এছাড়া এই ঘটনার পর তার ব্যবহৃত আইফোনে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ৩৭ টি দুষ্ট ভিড়িও ডাউনলোড হয়ে যায়। এমনকি তার কথাতেও শুধু বারবার তারেকের গুণগান!

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের পর থেকে মস্তিষ্ক হ্যাকিংয়ের অভিযোগে আমেরিকার বিভিন্ন আদালতে একাধিক মামলা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, মস্তিষ্ক হ্যাকিংয়ের বিষয়টি নিশ্চিত হতে এ সম্পর্কে আরও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি