সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২



বাবার মতো হওয়ার চেষ্টায় তারেক রহমান


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
11.12.2021

নিউজ ডেস্ক : ১০ ডিসেম্বর বাংলাদেশের জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির অফিসিয়াল পেইজ থেকে লাইভে আসেন দলটির পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান। ১০ মিনিটের বক্তব্যে তিনি সম্পূর্ণ ভুলভাল ইংরেজি ভাষায় তার বক্তব্য রাখেন। সম্পূর্ণ বক্তব্যটি দেখে দেখে পড়লেও তাতে ৭৯৩টি ভুল পাওয়া যায়।

অনেকেই বলছেন, তিনি নাকি তার বাবার মতো হবার চেষ্টা করছেন। কারণ তার বাবা জিয়াউর রহমান সব সময় ইংরেজি ভাষায় কথা বলতেন।

এ বিষয়ে দল থেকে পদত্যাগ করা বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ খান বলেন, জিয়াউর রহমানের বেড়ে ওঠা ছিলো পাকিস্তানে। আর এ কারণে তিনি বাংলা বলতে না পারায় ইংলিশে কথা বলতেন। তবে তারেক রহমানের জন্ম পূর্ব পাকিস্তানে হলেও তিনি বাংলাদেশে বড় হয়েছেন। সে কারণে তার বাংলা ভাষায় কথা বলা উচিত ছিলো। কিন্তু তিনি জিয়াউর রহমানের দুর্বলতাকে ভুল বুঝে নিজেই ইংরেজিতে কথা বলা শুরু করেছেন, যা নিঃসন্দেহে হাস্যকর। কেননা জিয়াউর রহমান ইংলিশে কথা বলতেন কারণ তিনি বাংলা জানতেন না। আর তারেক রহমান সেটা না বুঝে এখন ইংরেজিতে কথা বলা শুরু করেছেন। এরপর তার ইংলিশ যদি সুন্দর হতো তাও একটা কথা ছিলো। প্রথমত তিনি দেখে দেখে কথা বলেছেন। দ্বিতীয়ত দেখে দেখে পড়লেও সেখানে ৭৯৩টি ভুল ছিলো। ১০ মিনিটের বক্তব্যে যদি ৭৯৩ টি ভুল থাকে। তবে এক ঘণ্টার বক্তব্যে কতোটি ভুল থাকবে, সে বিষয়টি চিন্তা করছি।

এদিকে ১০ ডিসেম্বর তারেক রহমানের বক্তব্যের মূল বিষয় ছিলো খালেদা জিয়া নাকি আপোষ করেনি। এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল তর্ক শুরু হয়। কারণ, রাজনীতির জীবদ্দশায় খালেদা জিয়া একাধিকবার আপোষ করেছেন।

দুর্নীতি দায়ে ২০০৮ সালে তারেক রহমান যখন রিমান্ডে যায় তখন তৎকালীন সরকারের সঙ্গে খালেদা জিয়া আপোষ করার মধ্যদিয়ে তারেক রহমান বিদেশে যেতে পারে। ২০১৯ সালে ফের আপোষ করে কারাগার থেকে গুলশানের বাসায় ওঠেন খালেদা জিয়া। এছাড়া বর্তমানে গুলশানের বাসায় অবরুদ্ধ খালেদা জিয়া আপোষে মুক্তি চাচ্ছেন। অথচ ৭৯৩টি ভুল নিয়ে ইংরেজিতে তারেক রহমান বলছেন, খালেদা জিয়া নাকি আপোষ করেনি। যা বিব্রতকর বলে আখ্যায়িত করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। মূলত এমন মিথ্যাচারের কারণে বিএনপির এমন অধঃপতন হচ্ছে বলে মনে করছেন তারা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি