শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » স্ত্রী-কন্যা নিয়ে বিপাকে তারেক, বিতাড়িত হচ্ছেন লন্ডন থেকেও



স্ত্রী-কন্যা নিয়ে বিপাকে তারেক, বিতাড়িত হচ্ছেন লন্ডন থেকেও


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
03.01.2022

নিউজ ডেস্ক : হাজারো দুর্নীতি আর কোটি কোটি টাকা লুটপাট করে দণ্ডপ্রাপ্ত হয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এবং বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমান। দণ্ড এড়াতে দেশ ছেড়ে ১২ বছরেরও বেশি সময় ধরে পালিয়ে রয়েছেন লন্ডনে। তবে সেখানেও আর থাকা হচ্ছে না তারেকের। এমনটাই জানাচ্ছে লন্ডনের বিভিন্ন বাংলা কমিউনিটি।

জানা যায়, লন্ডনে পালিয়ে থেকেও বিলাসী জীবন থেকে বের হতে পারছেন না তারেক। বিলাসী জীবনের খরচ বহন করতে অনৈতিক আয়ের সুযোগ খুঁজছেন নিয়মিত। পাচারের টাকা নিচ্ছেন নিজের অ্যাকাউন্টে। জঙ্গিবাদকে প্রমোট করে পাচ্ছেন বড় অঙ্কের টাকা। এসব অভিযোগের তথ্য-প্রমাণ পেয়েছে লন্ডনের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এতে স্ত্রী-কন্যা নিয়ে লন্ডনে বিপাকে পড়তে যাচ্ছেন তারেক রহমান।

বাংলা নিউজ ব্যাংকের সূত্র জানিয়েছে, বিভিন্ন দেশ হতে নামে-বেনামে বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা যাচ্ছে তারেকের অ্যাকাউন্টে। এতেই সন্দেহ সৃষ্টি হয় লন্ড‌নের কিংসস্টন এলাকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর। পরে তারা খোঁজ নিয়ে দেখেন ওইসব অ্যাকাউন্ট হোল্ডারের বেশিরভাগই জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত। এ ছাড়াও তারেকের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংয়ের তথ্যও তাদের হাতে এসেছে।

এরপর দেশটির প্রশাসন তারেকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার পরিকল্পনা করছে। রাজনৈতিক আশ্রয়ের সুযোগ নিয়ে কেউ জঙ্গিবাদকে প্রমোট করুক এটা ব্রিটেন কখনোই চাইবে না। তাই খুব দ্রুতই তারেকের আশ্রয় বাতিল করা হবে। তাকে লন্ডনে আর রাখা নিরাপদ হবে না। এমনটাই বলছে লন্ডনের বিভিন্ন স্থানীয় গণমাধ্যম।

লন্ডনের বাংলা কমিউনিটির প্রভাবশালী এক বাঙালি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, কিংসস্টন লজ হো‌টে‌লের ল‌বি‌তে টাকা ওড়ানো তারেকের এক ধরনের নেশা। এছাড়াও স্ত্রী ডা. জোবায়দার খরচ দেয়া ও কন্যা জাইমার বিলাসী জীবন এবং লেখাপড়ার খরচ বহনে বহু টাকার দরকার হয় তারেকের। ফলে অবৈধ পথ বেছে নেয়া ছাড়া উপায় নেই।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রের তথ্য বলছে, মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন তারেককে অর্থ প্রদান করে। সরকার গঠনের পর বিএনপি যেন বাংলাদেশে জঙ্গিদের ঘাঁটি বানাতে দেয়, এই স্বার্থে তারা তারেকের পেছনে জলের মতো টাকা ঢালছে।

সাবধানতা অবলম্বনের আহ্বান জানিয়ে বিশিষ্টজনরা বলছেন, নিজেদের স্বার্থে যারা দেশকে বিক্রি করে দিতে দ্বিধা করে না, যারা জঙ্গিবাদকে ঠাঁই দিতে পকেটে টাকা ঢোকায় তাদেরকে বয়কট করা সময়ের দাবি। জনগণকে এসব স্বার্থান্বেষী ব্যক্তি বা দল থেকে দূরে রাখা জরুরি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি