দেশে অমিক্রন-ডেল্টার ছড়াছড়ি, বিএনপির মুখে শুধুই খালেদা জিয়া

নিউজ ডেস্ক : দেশে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির ধারাবাহিকতায় দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আট হাজার ছাড়িয়ে গেছে। মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্ত হয়েছে ৮ হাজার ৪০৭ জন। এ সময় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। দেশে যখন করোনার প্রকোপ পুনরায় দেখা দিয়েছে, ঠিক তখন জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে দলটির নেতারা। দেশের মানুষের কথা চিন্তায় না আসলেও নেত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন বিএনপি নেতারা।

করোনার নতুন ধরন অমিক্রনও দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। করোনার এই ধরন অতিসংক্রামক। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম জানিয়েছেন, রাজধানী ঢাকায় অমিক্রনের সংক্রমণ বেশি ঘটেছে।

তবে ঢাকার বাইরে এখনো করোনার ডেলটা ধরনের সংক্রমণ ঘটছে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে এরই মধ্যে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান-সমাবেশ বন্ধসহ ১১ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এসব নির্দেশনা না মানলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে বলে সতর্ক করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সরকারের গৃহিত নানা পদক্ষেপের বিপরীতে বিএনপির তরফ থেকে নেয়া হয়নি কোনো পদক্ষেপ। উল্টো দলটির নেতৃবৃন্দ দলীয় প্রধান বেগম জিয়াকে নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। দেশ গোল্লায় গেলেও তাদের কোনো মাথাব্যথা নেই। নেত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে তারা উদ্বিগ্ন। মির্জা ফখরুলদের চোখে গোটা দেশ একদিকে আর বেগম জিয়া আরেক দিকে।

এদিকে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপি আসলে দেশ ও দশের কথা চিন্তা করে না। যার প্রমাণ অতীতেও পাওয়া গেছে। নেত্রীকে নিয়ে তারা ব্যস্ত। অথচ তারা বিএনপিকে জনবান্ধব রাজনৈতিক দল হিসেবে দাবি করে।

এ বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাবেক অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে বিএনপির কোনো পদক্ষেপ চোখে পড়েনি। নিজেদের ‘জনগণের দল’ হিসেবে দাবি করলেও আসলে তারা কখনই জনগণের বিপদে কাজে আসে না। জনগণের সাথে প্রতারণা করে দলটি। ব্যক্তি ও দলকেন্দ্রিক স্বার্থপর চিন্তা-ভাবনা এবং কর্মকাণ্ডের কারণে বিএনপি আজ জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.