বিএনপির লবিস্ট নিয়োগের কপি যাচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংকে

‘বর্তমান সরকার ও দেশবিরোধী প্রচারণায়’ বিএনপি-জামায়াত যেসব লবিস্টের সঙ্গে চুক্তি করেছে, সেই সব চুক্তির কপি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের কাছে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত বাংলাদেশের বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে প্রচারণায় বিদেশি লবিস্টের সঙ্গে যেসব চুক্তি করেছে, সেসব চুক্তির কপি আমরা আজই বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের কাছে পাঠাব।’

সম্প্রতি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘এই চুক্তি করতে বিদেশে যে অর্থ তারা পাঠিয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের তাতে অনুমোদন রয়েছে কিনা- তা যাচাই করতে পারে। একইসঙ্গে প্রতিটি রাজনৈতিক দলকে আয়-ব্যয়ের হিসাব নির্বাচন কমিশনে দাখিল করতে হয়। নির্বাচন কমিশনে বিএনপি-জামায়াত এই অর্থের হিসাব দিয়েছে কিনা, কমিশনও নিশ্চয়ই খতিয়ে দেখবে।’

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত বিদেশি লবিস্ট নিয়োগে ৮টি চুক্তি করেছে। এর মধ্যে তিনটি চুক্তি করেছে বিএনপি। এই তিন চুক্তিতে বিএনপি ৩.৭৫ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে। বিএনপি অফিসের ঠিকানাও চুক্তির কপিতে উল্লেখ করা হয়েছে। জামায়াতের চুক্তির কপিতে প্রতিষ্ঠানটির ঠিকানা দেওয়া নেই। তবে চুক্তির কপিতে তাদের নাম রয়েছে।’

শাহরিয়ার আলম বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন লবিস্ট ফার্মের সঙ্গে তারা চুক্তি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের আইনে এসব চুক্তির অনুমোদন রয়েছে। তবে এই চুক্তির অর্থ কীভাবে এলো, আমরা সে বিষয়ে খতিয়ে দেখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানাই।

এর আগে সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বিএনপি-জামায়াতের লবিস্ট নিয়োগে অর্থ ব্যয়ের বিষয়টি তুলে ধরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.