বরিশালে টাকার বিনিময়ে ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি গঠনের অভিযোগ

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নে টাকার বিনিময়ে ছাত্রদলের কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে। ত্যাগী ও পরীক্ষিতদের বাদ দিয়ে কমিটি ঘোষণা করায় ক্ষেপেছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

পদবঞ্চিতদের অভিযোগ- আগৈলঝাড়া উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক হামিদুর রহমান মহিদুল ও সদস্য সচিব রাতুল ইসলাম সাহেদ নিজেরাই বিতর্কিত। তাদের বিরুদ্ধে ইয়াবা ও চেক জালিয়াতির দুটি মামলা রয়েছে। এর মধ্যেই রাজিহার ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটিতে টাকার বিনিময়ে অযোগ্যদের অন্তর্ভুক্ত করেছেন তারা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ইউনিয়ন ছাত্রদলের একাধিক কর্মী জানান, রাংতা গ্রামের সায়েম আকন নামে এক ব্যক্তির মাধ্যমে টাকা নিয়ে ঐ গ্রামের সাতজনকে ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি-সাংগঠনিক সম্পাদকসহ বিভিন্ন পদ দিয়েছেন উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব সাহেদ। এছাড়া ত্যাগী সব নেতাকে পাশ কাটিয়ে পছন্দের লোক দিয়ে রাজিহারসহ বাগদা, রত্নপুর ও বাকাল ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি দেওয়া হয়ছে।

আরো জানা গেছে, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন ইউনিয়ন ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

আগৈলঝাড়া উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক হামিদুর রহমান মহিদুল বলেন, সবার মতামত নিয়ে ত্যাগী ও পরীক্ষিতদের সমন্বয়ে কমিটি করেছি। একটি স্বার্থান্বেষী মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, এখন দলের দুঃসময় চলছে। এই সুযোগে সব নেতাদের নামে হয়রানিমূলক মামলা করা হয়েছে। আমার নামেও মিথ্যা মামলা রয়েছে। আমি কারো সঙ্গে জালিয়াতি বা প্রতারণা করিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.