গুজব ছড়ানোর দায়ে শিবির নেতার ১০ বছর কারাদণ্ড

রাজশাহীতে আওয়ামী লীগকে ব্যঙ্গ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘কাল্পনিক গল্প’ পোস্ট করায় ছাত্রশিবিরের এক নেতাকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া দণ্ডিতকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

গতকাল রাজশাহী বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত শিবির নেতার নাম আবদুল মুকিত ওরফে রাজু (২৬)। তিনি রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ন ছাত্রশিবিরের সভাপতি বলে জানা গেছে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল প্রসিকিউটর (পিপি) ইসমত আরা জানান, মামলার বাদী সাইদুর রহমান ওরফে বাদল পবা উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য। তিনি টানা তৃতীয়বারের মতো ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

মামলার বাদী সাইদুর রহমান বাদল অভিযোগ করেছিলেন ২০১৭ সালের ২৭ মে শিবির নেতা মুকিত তার ফেসবুক আইডিতে আওয়ামী লীগকে ব্যঙ্গ করে একটি ‘কাল্পনিক গল্প’ পোস্ট করেন। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুণ্ণ হয়।

এদিকে সাইদুর রহমান পরদিন এ ঘটনার অভিযোগে রাজশাহীর পবা থানায় তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মুকিতের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পবা থানা পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করেন। পরে চার্জশিট দেওয়া হয়। বিভিন্ন দিনে আটজনের সাক্ষ্য-গ্রহণ শেষে বিচারক আসামির সাজা ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.