খুলনায় মন্দিরের প্রতিমা ভেঙে ধরা পড়লো হিন্দু যুবক

দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টে একের পর অপতৎপরতা চালাচ্ছে একটি চক্র। যার ধারাবাহিকতায় কুমিল্লা, রংপুর ও নওগাঁয় মন্দিরে হামলার মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটায় তারা। এরপর নতুন করে খুলনায় ঘটিয়েছে এমন ঘটনা।

জানা যায়, খুলনার ফুলতলা এম এম কলেজ সার্বজনীন পূজা মন্দিরে স্বরস্বতী প্রতিমার মাথা ভেঙে পালানোর সময় অনিক মন্ডল (১৭) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশের হাতে দিয়েছে স্থানীয়রা। শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টায় কলেজ মন্দির এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সে অভয়নগর উপজেলার ধুলগ্রামের অসীম মন্ডলের পুত্র।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, এম এম কলেজের এমএলএসএস খোরশেদ আলম তার দায়িত্ব পালনকালে ওই যুবককে একটি শপিং ব্যাগ হাতে নিয়ে মন্দির থেকে বের হতে দেখে। তাকে সন্দেহবশত: আটক করলে ব্যাগের মধ্যে স্বরস্বতীর প্রতিমার ভাঙা মাথা দেখতে পান। এ সময় তাকে আটক করে মন্দির কমিটিকে অবহিত করলে তারা পুলিশকে খবর দেয়। এ ঘটনায় মন্দির কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবোধ কুমার বসু বাদি হয়ে অনিক মন্ডলকে আসামী করে ফুলতলা থানায় মামলা (নং-০২, তারিখ-০৬/০৫/২২ইং) দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইলিয়াস তালুকদার জানান, মন্দিরের ভেতরে অনাধিকার প্রবেশ করে ধর্মীয় অবমাননার উদ্দেশ্যে স্বরস্বতীর প্রতিমা ভাংচুর করে ক্ষতি সাধন এবং চুরির অপরাধে তাকে আটক করা হয়েছে। তবে অন্য কোন উদ্দেশ্য ছিল কিনা সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে, স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সুকৌশলে এই অপকর্ম করে স্থানীয় মুসলিমদের ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র করেছিল অনিক মণ্ডল। তাকে আটক করা সম্ভব না হলে এ ঘটনায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যেতে পারতো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.