খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার কঠোর নির্দেশনা দিলেন গয়েশ্বর

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো পথ নেই বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো পথ দেখতে পাই না। কারণ, নিয়মতান্ত্রিক কোনো পথই খোলা নেই। ৯ মে জাতীয় প্লেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

তিনি দলীয় নেতাদের প্রতি ইঙ্গিত করে বিক্ষুব্ধ ভাষায় বলেন, শুধু বদ্ধ ঘরে মুক্তির পথ খুঁজলে বেগম জিয়ার মুক্তি কোনোদিনই সম্ভব না। একজনের সিদ্ধান্তের উপর ভর করে যদি দল চলে তাহলে তো প্রতিটি ঘরে ঘরে একটি করে দল গড়ে উঠতো! ম্যাডামের মুক্তি নিয়ে কোনো কার্যকরী সিদ্ধান্তই নিতে পারেনি বিএনপির হাইকমান্ড।

তিনি কৌশলে তারেক রহমানের প্রতি কিছুটা তাচ্ছিল্যের সুরে বলেন, হাইকমান্ড যে কার্যকরী সিদ্ধান্ত দেবে- সেটিই বা কিভাবে? যেখানে সকল সিদ্ধান্ত নেয় হাইকমান্ডের এক মাথা, সেখানে বাকি মাথার কাজ কী? বাকি মাথাগুলো (দলের শীর্ষ নেতারা) দড়ি দিয়ে বাঁধা অবলা প্রাণী। যেন তারা শুধু খেলা দেখবে আর একজন খেলবে।

গয়েশ্বর বলেন, ওই এক মাথার হাইকমান্ড সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে অনুমতি ছাড়া এগোতে মত দেননি। তাহলে বিএনপিকে সরকারের সঙ্গে মার্জ করে চালালে তো আরও বেশি সুবিধা পাওয়া যাবে। এই উপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে দেরি হচ্ছে কেন? আসুন সব এক হয়ে যাই।

অনুষ্ঠানে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এড. আব্দুস সালামসহ উপস্থিত আরও অনেক নেতা বিব্রত হলেও গয়েশ্বরের বক্তব্যে তারা নীরব ভূমিকা পালন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.