তারেকের বাধায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যাওয়া হলো না বিএনপি নেতাদের!

নিউজ ডেস্ক : সরকারের পক্ষ থেকে ২৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিএনপির সাত জন নেতাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আমন্ত্রণ পেয়ে ভীষণ লজ্জা পেলেও দেশের এই বৃহৎ অর্জন- পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ইতিহাসের অংশ হতে চায় দাওয়াত প্রাপ্ত নেতারা। কিন্তু বাধ সেধেছে লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

সূত্র জানায়, আমন্ত্রণ এবং উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নেতাদের যাওয়ার আগ্রহের বিষয়টি জানতে পেরে বেজায় চটেছেন তিনি। ফোন করে মির্জা ফখরুলসহ একাধিক নেতাকে শাসিয়েছেন। দিয়েছেন কঠোর নিষেধাজ্ঞা।

তারেক রহমান বলেছেন- ‘আপনাদের যদি লজ্জা থাকে তাহলে ওই অনুষ্ঠানে যাবেন না। সরকার উদারতা দেখালেও আমরাদের যাওয়া ঠিক হবে না। জনগণ মনে করবে আমরা আওয়ামী লীগ সরকারের কাছে হেরে গেছি।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিএনপি নেতা বাংলা নিউজ ব্যাংককে জানায়, আমন্ত্রণ পেয়ে বেজায় খুশি হয়েছিল বিএনপির নেতারা। বলাবলি করছিল- ছেলে-মেয়েরা, নাতি-পুতি অন্তত গল্প করতে পারবে আমার দাদা/নানারা পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছিল।

আর রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপির অনেক নেতাই এই ইতিহাসের অংশ হতে চায়। কিন্তু দলটির প্রধান বেগম খালেদা জিয়া পদ্মা সেতু নিয়ে যে উপহাস করেছেন এর পর তার দলের নেতাদের আর মুখ দেখানোর জায়গা নেই। অনেকে আসতে চাইলেও দলের হাইকমান্ড তাদের ইগো ধরে রাখার জন্য দলের কাউকে আসতে দেবে না। মূর্খ এই দলটির নেতারা এটা বুঝলো না- সরকারের আমন্ত্রণে সাড়া দিলে জনগণের কাছে সম্মানিত হতো। এখন পেল তিরস্কার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.