নিন্দুকের গালে চপেটাঘাত ‘পদ্মা সেতু’

নিউজ ডেস্ক: নানা প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে পদ্মা সেতু এখন যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত। নিজস্ব অর্থায়নে এ সেতু নির্মাণ করে বাংলাদেশ তার অর্থনৈতিক সক্ষমতা প্রমাণ করেছে। জাতির এ গৌরবের অংশীদার দেশের ১৮ কোটি মানুষ। কিন্তু ক্ষমতালোভী দেশবিরোধী অপশক্তি বিএনপি-জামায়াতের তাতে গাত্রদাহ হচ্ছে। কারণ উন্নয়নবান্ধব আওয়ামী সরকার তার ইশতেহার পূরণের মাধ্যমে আগামী নির্বাচনে জয়ের পথে আরেক পা এগিয়ে গেলো।

দেশবিরোধী এই দলটি দেশের উন্নয়ন, মর্যাদায় খুশি হতে পারে না। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি এসব ভালো কাজের কাণ্ডারি হন তবে তো কথাই নেই। স্বার্থান্বেষী ওই মহলের কাজ ছিদ্রান্বেষণ করে এর ত্রুটি বের করা। সেটিও যদি পাওয়া না যায়, তবে মনগড়া মিথ্যাচার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করার শেষ অস্ত্র ব্যবহার করতে শুরু করা। সব মিথ্যাচার, কুৎসা আর ষড়যন্ত্রে বিএনপি তার দেউলিয়াত্বের চূড়ান্ত পর্যায় পার করেছে।

প্রকল্পের শুরু থেকে বাস্তবায়ন পর্যন্ত, পুরোটাজুড়েই পদ্মা সেতু নিয়ে একের পর এক মিথ্যাচার ও বিতর্কিত মন্তব্য করে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করার এমন কোনো কাজ নেই যা বিএনপি-জামায়াতের নেতা কর্মীরা করেনি। কখনো সরাসরি বিরোধিতা, কখনো দুর্নীতির অভিযোগ, কখনো বা করেছে সেতু নির্মাণের কৃতিত্ব দাবি। এমনকি বিশ্বব্যাংক সরে দাঁড়ানোর পর কেউ কেউ দাবি করেছিলেন প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগও।

পদ্মা সেতুর কাজ যখন চলমান তখন, ২০১৮ সালের ২ জানুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আওয়ামী সরকারের এই প্রকল্প নিয়ে কটাক্ষ করে বলেন, ‘পদ্মা সেতু আওয়ামী লীগের আমলে আর হবে না। আর যদি সেতু জোড়াতালি দিয়ে বানায়, সেই সেতুতে কেউ উঠতে যাবেন না। অনেক রিস্ক আছে।’ পিছিয়ে ছিলেন না দলের অন্য নেতারাও। সুর মেলাতে থাকেন খালেদা জিয়ার বক্তব্যের সাথে।

অন্যদিকে বিএনপি মহাসচিব দাবি করেন, ‘টিকবে না পদ্মা সেতু। পরে আবার তিনিই গত ৫ জুন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় পদ্মার দুই পাড়েই ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন খালেদা জিয়া।’

বিএনপির এমন রাজনৈতিক দেউলিয়াত্বের বিপরীতে সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করে রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিভুরঞ্জন সরকার বলেন, এই সেতু যেন না হতে পারে এর জন্য জাতীয়-আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ব্যক্তি ও গোষ্ঠীর ষড়যন্ত্র, অপতৎপরতা কিন্তু থেমে থাকেনি। তারপরও এই সেতু শেখ হাসিনার দৃঢ় সংকল্পে আজ বাস্তব। আজ বিশ্ব মিডিয়ার মূল হেডলাইন গৌরবের পদ্মা সেতু। এই সেতু হচ্ছে একই সঙ্গে ভালোবাসা ও আত্মমর্যাদার। পদ্মা সেতু আমাদের উন্নয়নের প্রতীক, সব ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রতীক, হার না-মানার প্রতীক। নিন্দুকের গালে চপেটাঘাত এই ‘পদ্মা সেতু’।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

নেতাদের হঠকারী সিদ্ধান্তে বিপর্যস্ত জামালপুর বিএনপি

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin দীর্ঘ দিন ধরে মাঠে নামতে পারছে না জামালপুর বিএনপি এবং এর অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা। তাদের সব কার্যক্রম দলীয় কার্যালয় নির্ভর। নেতাদের হঠকারী সিদ্ধান্ত, বিভক্তিসহ বিভিন্ন কারণে জামালপুর বিএনপি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে জামালপুর জেলা বিএনপির এক নেতা বলেন, সাধারণ সম্পাদক শাহ ওয়ারেছে আলী মামুনের হঠকারী […]

বিস্তারিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ, কৃষকদলের নেতা আটক

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কৃষকদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আল-আমিনকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার রাতে জেলা শহরের পাওয়ার হাউস রোড এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক আল-আমিন জেলা শহরের কান্দিপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কৃষকদলের যুগ্ম আহ্বায়ক। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, […]

বিস্তারিত

চট্টগ্রামে জামায়াত-শিবিরের ৫ নেতাকর্মী গ্রেফতার

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin চট্টগ্রাম নগরের পাঁচলাইশ থানার হামজারবাগ এলাকা থেকে জামায়াত-শিবিরের পাঁচ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার বিকেলে তাদের গ্রেফতার করা হয়। সোমবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন পাঁচলাইশ থানার ওসি মো. নাজিম উদ্দিন মজুমদার। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নুরুল আজিম, মো. মঞ্জুর আলম, মো. মকবুল হোসাইন, মো. রোকন উদ্দিন ও আব্দুল বারেক […]

বিস্তারিত