বিএনপি জল ঘোলা করে খাবে, ভোটেও আসবে শেষ বেলায়: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি সবসময় জল ঘোলা করে খাবে। তারা নিজেরাই নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেবেন। সেটাও হয়তো শেষ বেলায়।’

ওবায়দুল কাদের বলে, ‘তারা (বিএনপি) অনেক কথাই বলেন, শেষ পর্যন্ত আসল কথায় চলে আসেন। একটা কথা বলি, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করাটা বিএনপির অধিকার। সরকারের সুযোগ দেওয়া বা ত্রাণ বিতরণ করা নয়। নির্বাচনে অংশ নেওয়াটা বিএনপির অধিকার। দল হিসেবে গণতন্ত্রে বিশ্বাস করলে তারা অবশ্যই নির্বাচনে আসবেন। আমরা এটাই বিশ্বাস করি।’

সম্প্রতি রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ইভিএম বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে মতবিনিময়ে অংশ নেয় আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল। মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আগেও বলেছি, আমার বিশ্বাস বিএনপি শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে আসবে। আমরাও চাই বিএনপি আসুক, একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন হোক। বিএনপির মতো বড় একটা দল ভোটের বাইরে থাকবে, এটা আমরা চাই না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দল হিসেবে আমরা বলেই যাচ্ছি। পদ্মা সেতুর উদ্বোধনেও তাদের দাওয়াত দিয়েছি। খেয়াল করে দেখেন, আওয়ামী লীগের এ বিষয়ে পজিটিভ অ্যাটিচিউড (ইতিবাচক মনোভাব) আছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেখেন একটা কথা সবাই বলে, সরকারের অধীনে নির্বাচন। আমি অবাক হয়ে শুনি, ফখরুল সাহেবও বলেন এ সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবো না। ইলেকশন তো এ সরকারের অধীনে হবে না। ইলেকশন হবে ইলেকশন কমিশনের অধীনে। সরকার ক্রেডিবল, ফেয়ার অ্যান্ড ফ্রি ইলেকশনে যে যে সহযোগিতা দরকার, তা দেবে।’

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতি কী করবেন, সেটি তার সিদ্ধান্তের ব্যাপার। তিনি হয়তো প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শক্রমে করে থাকেন। এটা হয়তো নিয়ম, যাতে আমার কোনো এখতিয়ার নেই।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন তো রাজনৈতিক সংলাপে ডাকছে। সেখানে আমরা আসবো। আর এ ব্যাপারে আমাদের স্ট্যান্ড ক্লিয়ার অ্যান্ড লাউডার। আমরা গতবার যেটা বলেছি, একই দাবি আমরা পুনরাবৃত্তি করছি। আমরা চাই যে, এ প্রস্তাবগুলো গ্রহণ করা হোক। ইভিএমের ব্যাপারে আমরা অত্যন্ত পরিষ্কার এবং স্পষ্ট। মন থেকে চাইছি, ৩০০ আসনে ইভিএমে ভোট হোক। আমাদের এ নিয়ে কোনো আপত্তি নেই। আমরা সাপোর্ট করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজকে যে রাজনৈতিক দলগুলো এখানে এসেছে। আমার মনে হয়, অধিকাংশই ইভিএমের পক্ষে বলেছেন। আজকে অনেকগুলো দল এসেছে। আমরা সবার কথা শুনেছি। ইভিএমের বিরুদ্ধেও বলেছেন দু-একজন। এটা তো গণতন্ত্র। বিউটি অব ডেমোক্রেসি। বিরুদ্ধে তো বলবেনই। ভিন্নমত থাকতেই পারে। সেটা তো কোনো অসুবিধা নেই।’

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যেভাবে নির্বাচন কমিশন, নির্বাচনকালীন সরকার গঠন হয়, বাংলাদেশেও শেখ হাসিনার সরকার সেটাই অনুসরণ করবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

রয়টার্সের ফ্যাক্ট চেকে ধরা পড়লো বিএনপির অপপ্রচার

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিএনপি-জামায়াতের চালানো দেশবিরোধী মিথ্যা অপপ্রচার ধরা পড়েছে বিশ্বখ্যাত সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের ফ্যাক্ট চেক বা সত্যতা নিরূপণ প্রক্রিয়ায়। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) রয়টার্স প্রকাশিত ‘ফ্যাক্ট চেক: বাংলাদেশে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদের ভিডিওটি ২০২২ সালের নয়, ২০১৩ সালের’ (Fact Check-Video does not show 2022 fuel protests […]

বিস্তারিত

বিএনপির নির্যাতনের কথা আজও মানুষ ভোলেনি: তোফায়েল আহমেদ

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বিএনপির ২০০১ সালের অত্যাচার নির্যাতনের কথা আজও মানুষ ভোলেনি। নির্যাতনের ক্ষত বয়ে বেড়াচ্ছেন আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকর্মীরা। সম্প্রতি ভোলার ভেদুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছিদ্দিক পাটোয়ারির জানাজার আগে ঢাকা থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন তোফায়েল আহমেদ। এ […]

বিস্তারিত

তারেকের সৌদি যাওয়ার আবেদন নাকচ

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সৌদি আরবে ওমরাহ করার জন্য যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ব্রিটিশ সরকার তাকে অনুমতি দেয়নি। জানা গেছে, বর্তমানে তারেক রহমান ব্রিটিশ সরকারের রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকলেও এখনো ব্রিটিশ পাসপোর্টই পাননি। অনুসন্ধানে জানা গেছে, একটি পারমিট পাস নিয়ে তারেক রহমান বিদেশ যেতে পারেন। সেই পাসের […]

বিস্তারিত