ফখরুল ইমামের সৃষ্ট গুজবই এখন বিএনপি-জামায়াতের হাতিয়ার

নিউজ ডেস্ক: ধর্মের নামে অপরাজনীতি করা একাত্তরের পরাজিত শক্তি জামায়াত-শিবিরকে ব্যবহার করে আবারও অপপ্রচার শুরু করেছে বিএনপি। বিএনপি-জামায়াতের সখ্যতা দল দুটির জন্মলগ্ন থেকেই। মূলত ধর্মকে পূঁজি করে নানাভাবে অপব্যাখ্যা করে দেশের আপামর জনসাধারণকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে।

হেফাজত তাণ্ডবের মতোই আম জনতাকে উস্কে দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েই তারা এমন ঘৃণ্য পদক্ষেপ নিয়েছে। সামাজিক মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে অস্থিতিশীল করা হচ্ছে। আর এই গুজবের হোতা হচ্ছে দেশবিরোধী বিএনপি-জামায়াত অপশক্তি।

এদের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে সংসদে একের পর এক বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়াচ্ছেন সরকারবিরোধী ও প্রতিক্রিয়াশীল একাধিক জনপ্রতিনিধি।

সম্প্রতি জাতীয় পার্টি’র সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম শিক্ষাক্রমে পরিবর্তন নিয়ে বেশকিছু ভুয়া তথ্য সংসদে উত্থাপন করেন। তার উপস্থাপিত সাম্প্রদায়িক বক্তব্যের পর সচেতন নাগরিক সমাজে ব্যাপক সমালোচনার সম্মুখীন হন তিনি। পরে নিজের তথ্যের সত্যতা জানতে পারলে সেই বক্তব্য প্রত্যাহার করেন তিনি।

ফখরুল ইমামের এমন বক্তব্য প্রত্যাহারের পর এই গুজবকে উপজীব্য করে মাঠে নেমে পড়ে খালেদার গুজববাহিনী। থামছে না অপপ্রচার। থামবেই বা কি করে? সেই বক্তব্য সামাজিক মাধ্যমে বিভিন্ন গ্রুপ গুলোতে নামে বেনামে ছড়াচ্ছে হিংসাত্মক ও সরকারবিরোধী অপপ্রচার। সেই গুজবের সাথে একটি বইয়ের পাতা যুক্ত করে অপপ্রচার করা হচ্ছে। গুজবের অনুষঙ্গ হিসেবে পূর্বেও এই বইয়ের পাতা প্রচার করা হয়েছে। এই পৃষ্ঠাটি প্রচার করার মাধ্যমে অনেকে বোঝাচ্ছে অক্ষর শেখাতে হিন্দু ধর্মীয় শব্দ-বাক্য-ছবি বইয়ে যুক্ত করেছে সরকার। যা পুরোপুরিই বানোয়াট, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও সরকারবিরোধী অপপ্রচার ছাড়া আর কিছুই না।

এই পৃষ্ঠাটি যে বই থেকে নেয়া হয়েছে। সেই বইটি সরকারিভাবে প্রকাশিত কোন বই নয় এবং সেটি কোন স্কুলে পড়ানোও হয় না। এটি ইসকন প্রকাশিত ক্লাস ওয়ান ও নার্সারি শিক্ষার্থীদের উপযোগী করে প্রকাশ করা একটি বই। বইটি কেবল হিন্দু শিশুদের জন্য। ধর্মের আদলে শিশুপাঠ দেয়ার জন্য এই বইটি। বইটির নাম গুরুকুল শিশুপাঠ, প্রথম প্রকাশ ২০১৬ সালে।

এ ব্যাপারে রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক এ আরাফাত বলেন, ধর্মকে পূঁজি করে বিএনপি-জামায়াতের অপরাজনীতি নতুন নয়। সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে তারা যেকোনো কিছু করতে পারে। সম্প্রতি সংসদে জাতীয় পার্টির অতিউৎসাহী সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামের দেয়া গুজবীয় তথ্যকে হাতিয়ার বানিয়ে বিএনপি-জামায়াতের গুজব সেল অপপ্রচার চালাচ্ছে। সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার বিপরীতে তাদের একমাত্র কাজ গুজব সৃষ্টি করে জনগণকে বিভ্রান্ত করা। সচেতন নাগরিক সমাজ এদের প্রতিহত করতে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

কর্নেল ফারুক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনির মার্কাও ধানের শীষ!

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয় ১৫ আগস্ট ১৯৭৫। সেই নারকীয় হত্যাকাণ্ডকে দেশবিরোধী দল বিএনপি নাম দেয় “আগস্ট বিপ্লব” বলে। নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য রাষ্ট্রের এমন কোনো খাত নেই যেখানে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী তথা বিএনপি-জামায়াতের লোকদের পদায়ন করা হয়নি। এমনকি জাতির পিতার খুনিকেও […]

বিস্তারিত
বিএনপি

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে ১৬ আগস্ট মিলাদ পড়াবে বিএনপি

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আগস্ট মাসে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বিএনপি। জানা গেছে, আইনি প্রক্রিয়ায় নেত্রীর মুক্তি আদায়ে ব্যর্থ হওয়ায় আগস্ট মাসে ক্ষমতাসীন দলের আবেগকে পুঁজি করে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে প্রয়াস চালাবে দলটি। সে লক্ষ্যে ১৬ আগস্ট খালেদা জিয়াকে […]

বিস্তারিত
১৫ আগস্ট ও খালেদা জিয়া

১৫ আগস্ট ও খালেদা জিয়ার জঘন্য জন্মদিন নাটক

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: খালেদা জিয়া। এই নামটিই বাংলাদেশে বারবার জন্ম দিয়েছে একের পর এক বিতর্কের। কখনো অতি স্বজনপ্রীয়তা কিংবা দুর্নীতি আবার কখনোবা চারিত্রিক ত্রুটি। তবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার দিনটিকে তথা জাতীয় শোক দিবসে (১৫ আগস্ট) জন্মদিন পালনের যে জঘন্য রীতি সে তৈরী করেছে তা […]

বিস্তারিত